RBI এর সতর্কবার্তা! বাজারে ছড়িয়ে পড়েছে 500 টাকার জাল নোট, কীভাবে করবেন আসল নকলের পার্থক্য

বর্তমান সময়ে বাজারে ৫০০টাকার নোটের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। রিজার্ভ ব্যাংকের তরফ থেকে পাওয়া রিপোর্ট অনুযায়ী অন্যান্য আর্থিক বছরের তুলনায় এবার ৫০০ টাকার নোটের সংখ্যা অনেকটাই বেড়ে উঠেছে। ২০২০-২১ সালে পাওয়া রিপোর্ট অনুযায়ী এই জাল নোটের সংখ্যা বেড়েছে ৩১.৩ শতাংশ।

 

২০১৬ সালের ৮ নভেম্বর মাসের রাত আটটায় দেশবাসীর উদ্দেশ্যে ভাষণ দিতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি নোট বন্দি ঘোষণা করেন। ৫০০ টাকার নোট এবং ১০০০ টাকার নোট বাতিল করা হয়। কালোবাজারি রোখার জন্যই প্রধানমন্ত্রী এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। তারপর এই বাজারে আসে ৫০০ টাকার নতুন নোট। তখন বলা হয়েছিল সহজেই এই ৫০০ টাকার নোটকে নকল করা যাবেনা। কিন্তু পরিসংখ্যান বলছে ৫০০ টাকার নোটের নকল ক্রমশ বেড়ে চলেছে। তবে অন্যান্য নোটের জালিয়াতির সংখ্যা কমেছে বলে জানা গিয়েছে।

জেনে নিন কিভাবে আপনি ৫০০ টাকার আসল নোটকে চিনতে পারবেন-

১) ৫০০ টাকার নকল নটিকে যদি আলোয় ধরা হয় সে ক্ষেত্রে ৫০০ লেখাটা আলোয় স্পষ্ট দেখা যাবে।

২) আসল ৫০০ টাকার নোটে দেবনাগরী হরফে ৫০০ সংখ্যাটা লেখা থাকে।

৩) পুরনো নোটের তুলনায় নতুন নোটেঞ মহাত্মা গান্ধীর ছবির অবস্থানটা বেশ ভিন্ন ধরনের।

৪) মহাত্মা গান্ধীর ছবির ডান পাশে রয়েছে গ্যারান্টি ক্লজ, প্রতিশ্রুতির বয়ান সহ গভর্নরের স্বাক্ষর ও আরবিআই এর লোগো।

৫) ‘স্বচ্ছ ভারত’ এর লোগোটি রয়েছে নোটের পিছনের বাঁদিকে।

৬) নোটের পিছন দিকে অবস্থান করছে লালকেল্লার ছবি।