চেক জালিয়াতি রুখতে বড় ঘোষণা রিজার্ভ ব্যাঙ্কের, করা হবে দেশজুড়ে কার্যকর

এখন পেমেন্ট এর অনেক বিকল্প এসে গেছে৷ নেট ব্যাঙ্কিং, UPI এর মাধ্যমে বহু মানুষ  পেমেন্ট করে থাকেন৷ তবে এখনো গ্রাহকদের একটা বড় অংশ চেকের মাধ্যমে অর্থ লেনদেন করে থাকেন। অনেকের কাছেই চেক পেমেন্ট খুব সুরক্ষিত বলে মনে হয়৷ কিন্তু চেকের মাধ্যমে লেনদেন করলেও তার সুরক্ষা নিয়ে অনেক সময়  প্রশ্ন থেকেই যায়। তাই চেকের মাধ্যমে আর্থিক লেনদেন এর সুরক্ষা বজায় রাখতে এবং চেক  জালিয়াতি রুখতে এবার  বড়সড় বদল আনতে চলেছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া (RBI)।

 

আগামী ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে ইমেজ বেসড চেক ট্রানকেশন সিস্টেম (CTS) বলবৎ করা হতে চলেছে৷  রিজার্ভ ব্যাঙ্ক দেশজুড়ে CTS বাস্তবায়নের কথা ঘোষণা করেছে ফেব্রুয়ারি মাসে। দেশের সমস্ত ব্যাঙ্কের শাখাকে এই ইমেজ বেসড চেক ট্রানকেশন CTS এর  আওতায় আনা হবে। ইতিমধ্যেই ১,৫০,০০০ ব্যাঙ্ক এর ব্রাঞ্চ CTS এর  আওতায় রয়েছে।

২০২০ এর সেপ্টেম্বর থেকে ১,২১৯টি ECCS কেন্দ্রগুলি  CTS-এর আওতায় আনা  হয়েছে। এখনও ১৮,০০০ ব্যাঙ্ক এর শাখা বাকি রয়েছে। এ কারণে তাঁদের গ্রাহকদের চেক পেতেও বেশি সময় লেগে যাচ্ছে। রিজার্ভ ব্যাঙ্কের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ব্যাঙ্কগুলিকে ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২১ এর মধ্যে তাদের শাখাগুলিকে ইমেজ বেসড চেক ট্রানকেশন CTS সিস্টেমের আওতায় আনতেই হবে৷

এই প্রথমবার যখন ডিমেতে ভরা বাসাতে বিজ্ঞানীদের মিলল ডাইনোসরের ভ্রুণ, রয়েছে বাচ্চাও! সকলেই হতবাক

চেক ট্রানকেশন সিস্টেমের মাধ্যমে চেক সংগ্রহের প্রক্রিয়াটি দ্রুত হবে৷ গ্রাহকের প্রয়োজনীয়তা সময়মত পূরণ হবে৷  এটি পুরো ব্যাঙ্কিং ব্যবস্থাকে উন্নত করবে। ব্যাঙ্ক সংযুক্তিকরণের ফলে আগামী ২০২১ সালের ১ এপ্রিল থেকে সাতটি ব্যাঙ্কের চেক বই এবং পাসবুকগুলি অবৈধ হয়ে যাবে।

দেনা ব্যাঙ্ক, কর্পোরেশন ব্যাঙ্ক, বিজয়া ব্যাঙ্ক, অন্ধ্র ব্যাঙ্ক , ওরিয়েন্টাল ব্যাঙ্ক অফ কমার্স, ইউনাইটেড ব্যাঙ্ক আর এলাহাবাদ ব্যাঙ্ক এই ৭ টি ব্যাঙ্কের ক্ষেত্রে নতুন চেকবুকের জন্য আবেদন করতে বলা হয়েছে। সেই সঙ্গে ব্যাঙ্ক সংযুক্তিকরণের (Bank merger) জন্য বদলে যাচ্ছে  IFSC কোড।