এবার অতীন্দ্র চক্রবর্তীর বিরুদ্ধেই ভয়ানক অভিযোগ আনলেন রানুর মেয়ে স্বাতী রায়…

রানাঘাট রেল স্টেশনে গান করে ভিক্ষা করে বেড়ানো রানু মন্ডলকে এখন প্রায় সকলেই চিনে। যেমন কি আপনারা জানেন রাতারাতি সোশ্যাল মিডিয়ায় তার ভাইরাল হওয়া গানের জন্য তিনি রাতারাতি তারকা হয়ে ওঠেন। তবে রানুর এই জনপ্রিয়তার অন্যতম কারণ হল অতীন্দ্র চক্রবর্তী নামে এক ব্যক্তি যিনি এই রানু মন্ডলের গাওয়া গানের ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছিলেন। তবে এবার সেই অতীন্দ্র চক্রবর্তীর বিরুদ্ধেই ভয়ানক অভিযোগ আনলেন রানুর মেয়ে স্বাতী রায়।

সংবাদ সংস্থাকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে স্বাতী রায় দাবি করেন অতীন্দ্র চক্রবর্তী নামক ওই ব্যক্তি তার মায়ের অনেক টাকা-পয়সা লুট করেছেন। এইদিন স্বাতী বলেন অতীন্দ্র তার মাকে ব্যবহার করে অনেক টাকা রোজগার করেছেন। তবে এখানেই শেষ নয় স্বাতী আরও দাবি করে বলে যে, রানাঘাটের স্থানীয় এক ক্লাবের সদস্যরা তাঁর মায়ের খেলাল রাখতেন। তাঁরাই নাকি তাঁকে তাঁর মায়ের সঙ্গে দেখা করতে দিতেন না বলে দাবি তার।


তিনি জানান এই অতীন্দ্র ও তপন নামক দুই ব্যক্তি হলো সেই ক্লাবের সদস্য যারা নাকি তাকে তার মায়ের সাথে দেখা করতে দিত না বলে অভিযোগ করেন তিনি। দেখা করতে চাইলে তাকে হুমকিও দেওয়া হতো বলে এমনটাই অভিযোগ করেন।অতীন্দ্র ও তপন তাঁর মায়ের টাকা আত্মসাৎ করার জন্যই তাঁকে তাঁর মায়ের সঙ্গে দেখা করতে দিচ্ছেন না বলে অভিযোগ স্বাতীর। তবে বিষয়টি এখানেই শেষ নয় স্বাতী রায় আরও বলেন তার বিরুদ্ধে তার মাকে না দেখার যে অভিযোগটি করা হচ্ছে সেটি সম্পূর্ণ মিথ্যে।

তিনি নাকি জানতেন না তাহার মা স্টেশনে গান গাইছে। তিনি আরো বলেন বেশ কিছুদিন আগে তিনি তার মাকে ধর্মতলাতে দেখেন আর সেখানে তিনি তার মাকে 200 টাকা দিয়ে বাড়ি ফিরে যেতে বলেন। প্রতি মাসে মায়ের জন্য এক আত্মীয়ের কাছ থেকে 500 টাকা করে পাঠাতেন বলে জানান রানুর মেয়ে।স্বাতী জানান, তিনি বিবাহবিচ্ছিনা সিউরিতে একটা ছোট দোকান চালান, এবং তাঁর এক সন্তান ও রয়েছে। তবুও যতটা সম্ভব তিনিই তাঁর মায়ের দেখাশোনা করতেন। তিনি তাঁর মাকে বেশ কয়েকবার তাঁদের সঙ্গে এসে থাকতে বলেছিলেন, তবে রানু মণ্ডলই রাজি হননি বলে দাবি স্বাতীর।

তবে এখানেই শেষ নয় এই দিন স্বাতী রায় সংবাদমাধ্যমকে আরও জানিয়েছেন তিনি রানু মণ্ডলের প্রথম পক্ষের সন্তান। আর তার এক দাদাও রয়েছে।শুধু তাই নয় রানু মন্ডল এর দ্বিতীয় পক্ষের দুই সন্তানও রয়েছে এবং তারা হয়তো মুম্বাইয়ে থাকেন যদিও এ বিষয়ে তিনি নিশ্চিত নন যে তারা মুম্বাইয়ের কোন জায়গায় থাকেন। যদিও কারোর সঙ্গেই কারোর যোগাযোগ নেই। তাঁর কথায় রানু মণ্ডল দ্বিতীয় বিয়ের পরই তিনি মুম্বইতে চলে গিয়েছিলেন। রানুর অন্য সন্তানদের বিরুদ্ধে স্বাতীর ক্ষোভ প্রকাশ করে প্রশ্ন তোলেন, তাঁরা কেন মায়ের দেখাশোনা করছেন না?

The India Desk

Indian famous bengali portal, covers the breaking news, trending news, and many more. Email: theindianews.org@gmail.com

Related Articles

Close