মহেশ বাবুর মন্তব্যে ক্ষুব্ধ রাম গোপাল ভার্মা, বললেন বলিউড কোনো কোম্পানি নয় বরং..

মহেশ বাবু হলেন দক্ষিণ ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির একজন বিখ্যাত সুপারস্টার। কিন্তু সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় মহেশ বাবুর নাম উঠে এসেছে একেবারে অন্য ভাবে। সম্প্রতি মহেশ বাবু এমন একটি মন্তব্য করে বসেছেন সোশ্যাল মিডিয়াতে যা রীতিমতো বিতর্ক তৈরি করে ফেলেছে। আমরা সকলেই জানি দক্ষিণ ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি এবং বলিউড ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির মধ্যে বেশ কয়েকদিন ধরে ঠান্ডা লড়াই যেটা উস্কে দিয়েছেন মহেশ বাবু।

মহেশ বাবু সোশ্যাল মিডিয়ায় বলেছিলেন, “তাঁকে দিয়ে কাজ করানোর ক্ষমতা বলিউড ইন্ডাস্ট্রির নেই। তাই তিনি বলিউডে সময় নষ্ট করেন না”। আর ঠিক এই কথার পর থেকেই শুরু হয়ে যাই হইচই। এই প্রসঙ্গে বহু অভিনেতা-অভিনেত্রীরা মন্তব্য করেছেন এবং নিজেদের বক্তব্য প্রকাশ করেছেন।

একদিকে যেমন বলিউড অভিনেতা অজয় দেবগন বলেছেন, “বলিউড কখনো পিছিয়ে থাকতে পারে না”। তেমন সুনীল শেট্টি বলেছেন, “বাপ বাপ হতা হে_। দক্ষিণ ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি কখনো বলিউডের জায়গায় নিজেকে নিয়ে আসতে পারবে না। আবার রণবীর সিং বলেছেন, “আমরা সকলেই শিল্পী। এই শিল্প সত্তা নিয়ে কখনো প্রশ্ন উঠতে পারে না”। যাকে নিয়ে এত বিতর্ক সেই মহেশ বাবু বলেছেন, “আমার কথাকে বিকৃতভাবে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা হয়েছে। আমি কখনোই বলিউডে ছোট করার জন্য কোন কথা বলিনি”।

এবার এই প্রসঙ্গে চলচ্চিত্র নির্মাতা রামগোপাল ভার্মা নিজের মন্তব্য প্রকাশ করলেন। তিনি মহেশ বাবুকে উদ্দেশ্য করে বলেন, “একজন অভিনেতা কোন ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করবেন এটি সম্পূর্ণ তাঁর নিজের পছন্দ কিন্তু আমি বুঝতে পারিনি তিনি বলিউড বলতে কি বোঝাচ্ছেন। সম্প্রতি দক্ষিণ ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি যে সিনেমাগুলো মুক্তি পেয়েছে সেগুলো কিন্তু কোটি কোটি টাকা মুক্তি পেয়েছে হিন্দি সিনেমা ডাব করার পর”।

তিনি আরো বলেন, “বলিউড কোন সংস্থা হতে পারে না। এটি মিডিয়ার দেওয়া একটি লেবেল। এটি সংস্থা বা প্রোডাকশন হাউস যেটি নিদৃষ্ট মূল্যে একটি চলচ্চিত্র তৈরি করে। বলিউড বলতে হিন্দি ভাষার সম্পূর্ণ একটি চলচ্চিত্র জগৎ। যারা বলিউড সম্পর্কে কথা বলছেন তাঁরা আদৌ বলিউড কথাটির অর্থ বোঝেন না”।

প্রসঙ্গত, এর আগে রাম গোপাল বর্মা অজয় দেবগন এবং সুদীপ বিতর্কে বলেছিলেন, “বলিউড অভিনেতারা দক্ষিণ অভিনেতাদের দেখে ভীষণভাবে ঈর্ষান্বিত হন। কন্নড় ডাবিং সিনেমা কেজিএফ চ্যাপটার ২, ৫০ কোটি টাকা দিয়ে নিজের ব্যবসা শুরু করেছিল তাই স্বাভাবিকভাবেই বলিউড অভিনেতারা ঈর্ষান্বিত হয়ে ছিলেন দক্ষিণ ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির অভিনেতাদের নিয়ে”। এবার সম্পূর্ণ অন্যরকম একটি মন্তব্য করে বসলেন তিনি।