মোদী-অমিত শাহের জুটি মহাভারতের কৃষ্ণ-অর্জুনের জুটির মতো, জিত নিশ্চিত: রজনীকান্ত।

দ্বিতীয়বারের জন্য মোদি সরকার ক্ষমতায় আসার পর অমিত শাহ এবং নরেন্দ্র মোদির জুটি যে একেবারে মাত করে দিচ্ছে তা আমরা সবাই হাতেনাতে প্রমাণ পেয়ে যাচ্ছি। বিশেষ করে পাকিস্তানকে কড়া জবাব দেওয়ার ক্ষেত্রে এই জুটির জবাব নেই। প্রতিবারেই কিছু না কিছু পদক্ষেপ নিয়ে পাকিস্তানকে কড়া জবাব দিচ্ছে এই জুটি। এমনকি এই জুটির সুপারস্টার রজনীকান্ত পর্যন্ত নাম করেছেন। এদের জুটিকে তিনি কৃষ্ণ ও অর্জুনের জুটির সাথে তুলনা করেছেন। প্রসঙ্গত 5 ই আগস্ট জম্মু ও কাশ্মীর থেকে 370 ধারা তুলে নেওয়া হয়েছে।

কেউ ভাবেনি এত সহজে 370 ধারা তুলতে পারবে মোদি সরকার। কিন্তু মোদি সরকার এটা করে দেখিয়েছে।তবে অনেকেই মনে করছেন এটি করা খুব সহজ কিন্তু আসলে অতটা সহজ ব্যাপার নয়। 370 ধারা বিলুপ্ত করার জন্য এই সরকার গত 5 বছর ধরে কাজ করে এসেছে। RAW এর কাছ থেকে সঠিক সময়ে ইনপুট পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে 370 ধারা তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় কেন্দ্রীয় সরকার। আর কোন সময় না নিয়েই সঙ্গে সঙ্গে এই ধারা তুলে দেওয়ার ঘোষণা করে।

প্রসেসটি অতটা সহজ মনে হলেও এই পদক্ষেপ নেওয়া অতটা সহজ ছিল না। সেই দিক থেকে দেখতে গেলে মোদি ও শাহের জুটি প্রশংসনীয়। আজ রাজনিকান্ত একটি প্রোগ্রাম করতে গিয়ে মোদী ও অমিত শাহের প্রশংসা করেন। এই প্রোগ্রামে উপস্থিত ছিলেন ভারতের ভাইস প্রেসিডেন্ট ভঙ্কাইয়া নাইডু। এছাড়া ওই প্রোগ্রামে আরো অনেক বড় মাপের নেতারা এবং খোদ অমিত শাহ উপস্থিত ছিলেন ওখানে। সুপারস্টার অভিনেতা রজনীকান্ত থেকে মঞ্চ থেকে বলেন, নরেন্দ্র মোদী এবং অমিত শাহ জুটি অনেকটা কৃষ্ণ ও অর্জুনের জুটির সঙ্গে মেল খায়, এদের বিজয় নিশ্চিত। অনুষ্ঠানে তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী এবং অমিত শাহ উপস্থিত ছিলেন। রাজনিকান্ত আরও বলেন, ‘অমিত শাহ ও নরেন্দ্র মোদির জুটি যেভাবে কাজ করছে সেটা অনেকটা কৃষ্ণ ও অর্জুনের জুটির মতো, সেখানে যেমন বিজয় নিশ্চিত ছিল এখানেও তেমন বিজয় নিশ্চিত।

মহাভারতে অর্জুন ও শ্রী কৃষ্ণের জুটি সব জায়গাতে কাজ করে বিজয় লাভ করেছে তেমনি এই জুটি,সব জায়গাতে কাজ করছে এবং বিজয় লাভও করছে।’