‘কোনও পাক গায়কের সঙ্গে কাজ করবেন না’, জঙ্গি হামলার পর হুঁশিয়ারি রাজ ঠাকরের…

আরো একবার ফিরে এল উরির স্মৃতি 2016 সালে উরির সেনা ছাউনিতে জঙ্গী হামলার পর রাজ ঠাকরের মহারাষ্ট্র নবনির্মান সেনা পাকিস্তানি নায়ক-গায়কদের নির্দেশ দিয়ে 48 ঘন্টা সময় দিয়েছিল ভারত ছাড়ার জন‍্য। এবার আরও একবার কাশ্মীরের পুলওয়ামায় সিআরপিএফের কনভয়ে জঙ্গি হামলার পর ফের দৃপ্ত কণ্ঠে রাজ ঠাকরে ঘোষণা করে, সব মিউজিক কোম্পানিগুলি কে জানানো হয়েছে, তারা যেন পাকিস্তানি গায়কদের সঙ্গে কাজ না করে। এমএনএস সংস্কৃতির বিষয়ক শাখার তরফে ভারতের বড় সব মিউজিক কোম্পানি গুলিকে এ কথা জানানো হয়েছে শনিবার দিন। চিত্রপট সেনার প্রধান আমে খোপকার জানিয়েছেন আমরা ভারতের সব বড়ো মিউজিক কোম্পানী গুলির সাথে যেমন t-series, ভেনাস,টিপস মিউজিক,সনি মিউজিক সবার সঙ্গে এ ব্যাপারে আমরা কথাবার্তা বলেছি।

এবং তাদেরকে পষ্ট জানিয়ে দিয়েছি তারা যেন কোন পাকিস্তানি গায়ক এর সাথে কাজ না করেন। এছাড়াও তিনি আরো বলেন যারা বর্তমানে কাজ শুরু করছেন তারা যেন তাদের কাজ সেখানেই বন্ধ করে দেয় নইলে আমরা নিজেদের মতো করে পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হবো এই বিষয়ে। খোপকার কে এ ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তিনি বলেন সম্প্রতি ভূষণ কুমার এ কোম্পানি টি-সিরিজের সাথে পাকিস্তানের দুই জনপ্রিয় গায়ক রাহত ফতেহ আলী খান ও আতিফ আসলাম দুটি গানের অ্যালবাম করেছিলেন তবে তাদের হুঁশিয়ারির পর এই দুইজন গায়ক এর গান তাদের ইউটিউব চ্যানেল থেকে বাদ দিয়ে দেওয়া হয়েছে। এর আগে উরির ছাউনিতে জঙ্গি হামলার পর রাজ ঠাকরের মহারাষ্ট্র নবনির্মাণ সেনা 48 ঘণ্টা সময় দিয়েছিল পাকিস্তানি নায়ক ও গায়কদের ভারত ছাড়ার জন্য। শুধু তাই না উরির জঙ্গি হামলার পর দেশজুড়ে চালু হয়েছিল প্রতিবাদের , যার ফলে ফাওয়াদ খানের মতো নায়ক ও আতিফ আসলাম এর মত গায়ক ভারত ছাড়তে বাধ্য হয়।

তবে বলিউডের কিছু ব্যক্তি এই ঘটনাকে অনেক বাড়াবাড়ি বলেও মন্তব্য করেছিলেন আবার অনেকেই এই ঘটনার সমর্থন ও করেছিলেন বলেছিলেন যা হয়েছে বেশ হয়েছে। আর এই ঘটনার জেরে বেশ কিছুদিন বন্ধ ছিল পাকিস্তানি গায়ক ও নায়কদের সঙ্গে কাজ করা।আপনাদের সুবিধার্থে বলে দিই এরপর ফাওয়াদ খান আর বলিউডের ফেরেনি।তবে বেশ কিছু দিন বন্ধ থাকার পর শুরু হয়ে যায় আবার কাজ পাকিস্তানি গায়ক নায়ক দের সাথে। তবে বৃহস্পতিবার দিন স্বাধীন ভারতের কাশ্মীর মাটিতে সবচেয়ে বড় জঙ্গি হামলার পর আবার দেশজুড়ে শুরু হয়েছে প্রতিবাদের।এমনকি এই ঘটনার জেরে কেন্দ্রের তরফ থেকে পাকিস্তানি সামগ্রীর উপর 200 শতকরা ট্যাক্স নির্ধারণের ব্যবস্থা করে দেয়া হয়েছে।

তাছাড়া পাকিস্তানের ওপর থেকে সরে গেছে মোস্ট ফেভারিট নেশন- এর তকমা। দেশজুড়ে একটি শ্লোক শুনতে পাওয়া যাচ্ছে এই জঙ্গি হামলার উপযুক্ত জবাব দিতে হবে পাকিস্তানকে আর এরই মধ্যে হুংকার এল মহারাষ্ট্র নবনির্মাণ সেনার তরফ থেকে।

Related Articles

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Close