রেল পরিষেবায় বড়সড় ধাক্কা! লকডাউন উঠলেই বাতিলের মুখে একাধিক ট্রেন

দেশজুড়ে করোনা সংক্রমণের জেরে জারি রয়েছে লকডাউন, আর এই লকডাউনের সময়সীমা যে আবার বাড়তে পারে তা ইঙ্গিত মিলেছে গত 27 শে এপ্রিল প্রধানমন্ত্রীসহ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের বৈঠকে। সুতরাং আরো কয়েক দিনের জন্য আপনাদের ঘরে বসেই কাজ করতে হবে। গোটা ভারত এখন  সমস্যার সম্মুখীন এই মহামারী করোনা জেরে।যত দিন যাচ্ছে তত বেড়ে চলেছে করোনা মহামারীতে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা এই মুহূর্তে ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা গিয়ে পৌঁছেছে 31 হাজার 324 এ।

আর এই মরন ভাইরাস করোনার জেরে ভারতে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে 1008 জন। এই মুহূর্তে ভারতে এই করোনা আক্রান্ত অ্যাক্টিভ ব্যক্তিদের সংখ্যা রয়েছে 22,569 জন। তবে এখন এই লকডাউন এর মেয়াদ কাল কে নিয়ে রয়েছে ধোঁয়াশায় দেশবাসী, যেমন তা আমরা জানি এই দ্বিতীয় দফার লকডাউন শেষ হবে আগামী মে মাসের 3 তারিখে তবে আদৌ কী আবারও সেই লকডাউনের মেয়াদকাল বাড়িয়ে দেওয়া হবে না সে বিষয়ে নেই কোন সঠিক তথ্য। তবে এরকম ভাবে যদি দীর্ঘদিন একটানা লকডাউন রাখা হয় তাহলে ভারতের অর্থনীতিতে এর একটা বড়োসড়ো প্রভাব পড়বে। আর এমনটাই ইঙ্গিত পাওয়া গেলো রেল কর্তৃপক্ষের তরফ থেকেও। আর এই লকডাউনের জেরে কিছুটা ধাক্কা খাবে রেল পরিষেবা, তাই রেলের  তরফ থেকে মুনাফার মুখ দেখতে স্বল্প দূরত্বের যে দূরপাল্লার ট্রেন গুলি রয়েছে সেগুলি তুলে দেওয়া যেতে পারে এমনটাই ইঙ্গিত পাওয়া গেছে। আর এক্ষেত্রে রেলের তরফ থেকে পণ্যবাহী ট্রেন চালানোর উপরে আরো বেশি গুরুত্ব দেয়া হবে। তাকে শুধু তাই নয় এক্ষেত্রে যাত্রীবাহী ট্রেনের জন্য যে বরাদ্দ সময় টি রয়েছে সেটি ভবিষ্যতে মালগাড়ির জন্য বরাদ্দ করা যেতে পারে।

আর এমনটাই জানানো হয়েছে রেল কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে। যেহেতু পণ্য পরিবহন পরিসেবার মাধ্যমে রেলের সিংহভাগ হয়, সেহেতু ভারতীয় রেলের তরফ থেকে এরকম এক সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তবে যদি আগামী মে মাসের 3 তারিখের পরে একাধিক জায়গাতে লকডাউন খুলে দেওয়া হয় তবুও এক্ষেত্রে যাত্রীবাহী ট্রেন চালানো হবে কীনা সে বিষয়ে এখনো কোনো কিছু তথ্য বেরিয়ে আসেনি‌ সরকারের তরফ থেকে, অথবা রেল কর্তৃপক্ষের তরফ থেকেও।

Related Articles

Close