দেশনতুন খবরভারতীয় সেনারাজনৈতিক

পুলওয়ামা হামলা নিয়ে আজ আয়োজন করা হয়েছে সর্বদলীয় বৈঠকের,ইতিমধ্যে কাশ্মীরে জারি করে দেওয়া হয়েছে কড়া সতর্কতা।

পুলওয়ামা হামলায় পরবর্তী পরিস্থিতি সর্বদলীয় একটি বৈঠক ডেকেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। শনিবার অর্থাৎ আজ সকাল 11 টায় শুরু হবে এই বৈঠকের।সরকারি সূত্র থেকে জানতে পারা গেছে পুলওয়ামায় সিআরপিএফ কনভয়ে হামলা পর কি পদক্ষেপ নেওয়া যেতে পারে তা নিয়ে আলোচনা করতেই এই বৈঠকের আয়োজন করা হয়েছে। যেমন কি সকলেই জানেন বৃহস্পতিবার দুপুরে জম্বু কাশ্মীরে পুলওয়ামায় আত্মঘাতী জঙ্গি হানা হয়। এবং সেই ঘটনায় শহীদ হয়েছেন 40 জনেরও বেশি জওয়ানেরা। আর এই ঘটনার জেরে ক্ষোভ ফুটেছে গোটা দেশ জুড়ে ভারতীয়দের মধ্যে।এর আগে শুক্রবার দিন সকালে নিরাপত্তা সংক্রান্ত ক্যাবিনেট কমিটির একটি বৈঠকও করা হয়।

আর এই বৈঠকের মধ্যে নেতৃত্ব দেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এই বৈঠকের দরুন বেশ কিছু করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় পাকিস্তানের বিরুদ্ধে।আর এই বৈঠক শেষ করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং শ্রীনগর এর উদ্দেশ্যে রওনা দেন। আর শুক্রবার দিন এই বৈঠকে সর্বদলীয় বৈঠক নিয়ে সিদ্ধান্ত হয় সেখানে গোটা ঘটনা বিষয়ে সমস্ত রাজনৈতিক দল কে জানানো হবে। এখনো পর্যন্ত কি কি পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে জানানো হবে সে কথাও।এদিকে জম্মু-কাশ্মীরে জারি করে দেওয়া হয়েছে কার্ফু, জম্বু কাশ্মীর করা সতর্কবার্তা জারি করে তদন্ত চলছে। শুক্রবার দিন একটি তদন্ত টিম এনআই ও এনএসজি কমান্ডোকামান্ডো এই ঘটনাস্থল থেকে কিছু ফরেনসিক নমুনা সংগ্রহ করেছেন ইতিমধ্যে সাতজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে দেওয়া হয়েছে। আর এই ঘটনার জেরে তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ ফুঁসছে গোটা দেশে এর ঘটনার জেরে বদলা দেখতে চাই সকলে।

প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদি ও অরুণ জেটলি এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে কড়া পদক্ষেপের প্রতিশ্রুতিও দিয়েছেন, এছাড়া সরকারের পাশে থাকার জন্য আশ্বাস দিয়েছে বিরোধী দলের নেতা মন্ত্রীরা ও।আর গত শুক্রবার দিন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী ও সরকারের পাশে থাকার  কথাও জানিয়ে দিয়েছেন। এখন দেখার বিষয় একটাই সর্বদলীয় বৈঠকে বিরোধী দলগুলির তরফ থেকে কী মত উঠে আসে এবং পরবর্তী পদক্ষেপ হিসাবে কি সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

Related Articles

Back to top button