ভোট হলে কার দখলে যাবে বাংলা! কারা পাবেন কয়টি আসন, জানাচ্ছে সমীক্ষা..

রাজ্যজুড়ে করোনা সংক্রমণ দিনের পর দিন যেমন বাড়ছে তেমনি আবার বাড়ছে রাজনৈতিক উত্তেজনাও। রাজ্য করোনা এবং আমফান এই দুই কঠিন পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে বেরোচ্ছে। এরই মাঝে যদি বিধানসভা নির্বাচন হয় তাহলে রাজ্য কার দখলে আসবে, বিরোধীরা কতগুলি সিট পাবে, রাজ্যের মানুষ কী চাইছে সে বিষয়ে সমীক্ষা করেছে সেএনএক্স- এবিপি আনন্দ। এই সমীক্ষার রিপোর্টে স্পষ্টভাবে দেখা গেছে রাজ্যে কোন দল ক্ষমতায় আসবে। এছাড়াও আগের নির্বাচনে যে ব্যক্তিটি যে রাজনৈতিক দলকে ভোট দিয়েছেন, করোনা এবং আমফান পরবর্তী সময়ে তিনি কী ওই রাজনৈতিক দলকে আবার ভোট দেবেন সেই সম্পর্কেও সমীক্ষা করা হয়েছে।

এই প্রশ্নের উত্তরে হ্যাঁ বলেছেন মোট 87% মানুষ, না বলেছেন 11% মানুষ, জানিনা বা বলতে পারবো না এমন বলেছেন 2% মানুষ। অর্থাৎ এর দ্বারা বোঝা যাচ্ছে বিগত নির্বাচনে রাজ্যের মানুষ তার পছন্দের রাজনৈতিক দলকে ভোট দিয়েছেন তাকে আবার ভোট দেওয়ার পক্ষেই রয়েছে অধিকাংশ মানুষ। এছাড়াও সমীক্ষা করা হয়েছে রাজ্যের কোন রাজনৈতিক দল কত শতাংশ ভোট পাবেন এই মুহূর্তে। এই সমীক্ষায় দেখা গেছে, তৃণমূল কংগ্রেস পেতে পারে 38.50 শতাংশ ভোট, বিজেপি পেতে পারে 32.74 শতাংশ ভোট, সিপিএম এবং কংগ্রেসের জোট পেতে পারে 13.80 শতাংশ ভোট, অন্যান্যরা পেতে পারেন 5.43 শতাংশ ভোট, সিদ্ধান্ত নিতে পারেননি এমন মানুষ রয়েছেন 9.53 শতাংশ।

এই পরিস্থিতিতে যদি ভোট হয় তাহলে কোন রাজনৈতিক দল কত গুলি আসন পাবেন তারও সমীক্ষা করা হয়েছে। এই সমীক্ষাতে উঠে এসেছে, তৃণমূল কংগ্রেস পেতে পারে 155 থেকে 163 আসন, বিজেপি পেতে পারে মোট 97 থেকে 105 টি আসন, বাম ও কংগ্রেসের জোট পেতে পারে 22 থেকে 30 টি আসন, অন্যান্যরা পেতে পারে 6 থেকে 10 টি আসন।আপনাদের জানিয়ে দি রাজ্যের বিধানসভা মোট 294 টি আসান রয়েছে। এবং ম্যাজিক ফিগার 184 টি।

সমীক্ষায় উঠে এসেছে 2019 এ তৃণমূল এবং বিজেপি যে আসন পেয়েছিল তার তুলনায় কিছুটা হলেও কমে গেছে এই সমীক্ষায়। তবে এখনো পর্যন্ত দুই দলেরই ভালো ফল করার সময় রয়েছে। তবে কিন্তু রাজ্যবাসীর ক্ষোভ যদি বাড়তে থাকে তাহলে শেষে কিন্তু লাভ হবে বিরোধী দলগুলির। কিন্তু তৃণমূল কংগ্রেসের কাছে অনেক সময় রয়েছে রাজ্যবাসীর জন্য কাজ করার। অপরদিকে আবার সংখ্যালঘুদের মধ্যে প্রায় সব ভোট যেতো তৃণমূল কংগ্রেসের দিকে। কিন্তু এই সমীক্ষায় দেখা গেছে সংখ্যালঘুদের অনেকটাই এবার ঝুকে যাচ্ছে বাম কংগ্রেস জোট এর দিকে।

এর ফলে তৃণমূল কংগ্রেসের ভোট কিছুটা হলেও কমতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। এদিকে প্রধান বিরোধী দল বিজেপি চেষ্টা করছে রাজ্যের হিন্দু ভোট গুলিকে যেন তাদের দিকে আনা যায়। তারা যদি এই কাজটি করতে পারে তাহলে আসনের সংখ্যা অনেকটাই বাড়বে বিজেপির।

Related Articles

Back to top button