দেশনতুন খবরবিশেষলাইফ স্টাইল

সত্যিই কি প্রধানমন্ত্রী এই লকডাউনে প্রত্যেক ভারতীকে 15000 টাকা করে দিচ্ছেন? এর পেছনে আসল সত্য জানতে..

করোনা সংক্রমণ থেকে দেশকে রক্ষা করার জন্য 14 এপ্রিল পর্যন্ত 21 দিনের লকডাউন ঘোষণা করেছিলেন প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদি। কিন্তু 21 দিন লকডাউন থাকার পরেও দেশের অবস্থা স্বাভাবিক হয়নি তাই লকডাউন বাড়াতে বাধ্য হয় সরকার। 14 এপ্রিল অর্থাৎ আগামীকাল জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দিতে গিয়ে 3 মে পর্যন্ত লকডাউন বাড়ানোর কথা ঘোষণা করেন। এর সঙ্গে তিনি আরো জানান, লকডাউন এর নিয়ম মানা নিয়ে আরও কঠোর হচ্ছে সরকার।

দেশে হটস্পটের সংখ্যা যাতে না বৃদ্ধি পায় এবং একসাথে রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বিপুল পরিমাণে যাতে বৃদ্ধি না পায় সেটা দেখা এখন সরকারের মূল লক্ষ্য। এর জন্য সরকার কঠোর হতে পারে। এদিনে নরেন্দ্র মোদির  ভাষণের পর সোশ্যাল মিডিয়ায় এই খবর গুলো ছড়িয়ে যাওয়ার সাথে সাথে আরেকটি খবর ছড়িয়েছে। অনেকেই রটাচ্ছে যে লকডাউন চলাকালীন নাকি প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদী প্রত্যেকটি ভারতীয়কে 15 হাজার টাকা করে দেবেন। এমনই এক মেসেজ দেওয়া হচ্ছে এবং এই মেসেজের সঙ্গে একটি লিংক দেওয়া হচ্ছে। এবং সেই লিংকটি ওপেন করার সাথে সাথেই দিতে বলা হচ্ছে আপনার ঠিকানা, নাম আর ফোন নম্বর। ওই ফর্মটি ফিলাপ করলে নাকি পাওয়া যাবে 15 হাজার টাকা এমনটাই দাবি। শুধু তাই নয় আরও বলা হচ্ছে যে এই ফর্মটি ফিলাপ করে এখনো পর্যন্ত এক লাখেরও বেশি ভারতীয় এই সুবিধা পেয়েছেন। Pm15000rs.blogspot.com নামের একটি ওয়েবসাইটে সঙ্গে সঙ্গে লিংকটি অ্যাক্টিভ করা হয়েছে। কিন্তু এমন ধরনের লিঙ্ক থেকে সাবধান থাকুন। কারণ কেন্দ্রীয় সরকার এমন কোন প্রকল্পের ঘোষণা এর আগে করেননি। এর দ্বারা মানুষকে পুরোপুরি ঠকানো হচ্ছে।

কেন্দ্রীয় সরকার যে আর্থিক প্যাকেজের কথা ঘোষণা করেছে তার বাইরে অন্য কোনো সুযোগ- সুবিধার কথা কেন্দ্র সরকার দাবি করেনি। এমনকি গতকাল জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেওয়ার সময় নরেন্দ্র মোদী এই 15 হাজার টাকা দেওয়ার কথা একবারও বলেননি। সুতরাং এটি সম্পূর্ণ ভুয়া। সোশ্যাল মিডিয়ায় যদি আপনি কোন ভাবে এরকম লিঙ্ক পেয়ে থাকেন তাহলে ভুলেও ক্লিক করবেন না এসব লিংকে। এই ফাঁদে আপনারা ভুলেও পা দেবেন না।

Related Articles

Back to top button