করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতির মধ্যে দেশবাসীর উদ্দেশ্যে আবারো বার্তা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর..

আজ দেশজুড়ে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে 21 টি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সাথে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বৈঠক করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি‌। আর সেই বৈঠকে তিনি প্রশ্ন করে জানতে চান দেশজুড়ে এই করোনা সংক্রমণে লাখ প্রতি মৃত্যুর পরিসংখ্যান কত? তার পাশাপাশি এই ঘটনার জেরে মৃত্যু হওয়া মানুষদের নিয়ে দুঃখ প্রকাশ করলেন এবং বললেন এর জেরে একজনের মৃত্যু কাম্য নয়।তবে এই মুহূর্তে পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে ভারত বিশ্বের অন্যান্য দেশগুলোর তুলনায় ভালো অবস্থায় রয়েছে। বর্তমানে যা পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে তার জেরে এখন মাস্ক ছাড়া বাইরে বেরোনো যাবে না।

তাই রাজ্যগুলির তরফ থেকে প্রতিটি মানুষকে যেনো মাস্ক পরে বাইরে বেরোনোর বিষয় নিয়ে সুনিশ্চিত করা হয় তার পরামর্শ দিলেন তিনি। যারা আপাতত জানেন না তাদের উদ্দেশ্যে বলে রাখি, দেশের 21 টি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সাথে বর্তমানে করোনার পরিস্থিতি নিয়ে বৈঠক করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। যেখানে এই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন দিল্লি, কেরল, উত্তরাখণ্ড, পাঞ্জাব, গোয়া, সহ‌ একাধিক রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরা। আর এই বৈঠকের আলোচ্য বিষয় ছিল বর্তমানে দেশজুড়ে করোনা সংক্রমনের পরিস্থিতি। এই মুহূর্তে করোনা পরিস্থিতি কোন পর্যায়ে রয়েছে তা জানতে চান বিভিন্ন রাজ্যগুলির কাছে প্রধানমন্ত্রী।

তার পাশাপাশি মরণ ভাইরাস করোনার জেরে প্রতি লাখে কত জন মানুষের মৃত্যু হয়েছে তাও জানতে চান তিনি। এর পাশাপাশি তিনি একথাও মনে করিয়ে দেন করোনার জেরে মৃত্যু কখনই কাম্য নয়, তবু এই মুহূর্তে দেশে করোনার বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে। তার পাশাপাশি এই করোনা মোকাবেলা করতে বর্তমানে মাস্ক এবং স্যানিটাইজার কে নিত্যদিনের সঙ্গী করে তুলতে হবে একথাও মনে করিয়ে দিলেন তিনি।স্যানিটাইজার এর ব্যবহার এবং ঘনঘন সাবান দিয়ে ধোয়াকে অভ্যাসে পরিণত করতে হবে প্রত্যেক দেশবাসীকে বলে জানান তিনি।

এই মুহূর্তে বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় যে ভাল অবস্থায় রয়েছে ভারত সে কথাও তুলে ধরলেন তিনি এই দিনের বৈঠকে। আর এরকম এক অবস্থায় কেন্দ্রের সাথে থেকে করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করে যাওয়া জন্য রাজ্যগুলিকে অসংখ্য ধন্যবাদ জানালেন প্রধানমন্ত্রী।ভারতে এই মুহূর্তে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ হওয়ার পরও সুস্থ হওয়ার যে সংখ্যা রয়েছে সেটি 50 শতাংশেরও বেশি তাও জানিয়ে দিলেন তিনি।

Related Articles

Back to top button