দেশের সকল বেসরকারি কর্মীদের উদ্দেশ্যে এবার এক ঐতিহাসিক পদক্ষেপ নিতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী…

সরকারি কর্মীদের একটি নির্দিষ্ট বয়সের পর পেনশন প্রক্রিয়া চালু রয়েছে যেখানে তারা এই পেনশনের ওপর ভিত্তি করে তাদের পরবর্তী জীবনকাল কাটাতে পারে সুখ স্বাচ্ছন্দ্যে। তবে এই প্রক্রিয়াটি সরকারি ক্ষেত্রে চালু থাকলেও বেসরকারি কর্মীদের ক্ষেত্রে কোন প্রকার পেনশন ব্যবস্থা চালু নেই।তাই সে ক্ষেত্রে বেসরকারি কর্মীদের 60 বছরের পর অনেক ক্ষেত্রে আর্থিক অনটনের মধ্যে দিয়ে জীবন যাপন করতে হয়। তবে এবার দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এই সমস্যার সমাধান আনতে চলেছেন খুব শীঘ্রই।

প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী জানতে পারা যাচ্ছে খুব শিগগিরই মোদী সরকার এসব বেসরকারি কর্মীদের জন্যও পেনশন ব্যবস্থাকে চালু করতে চলেছেন, যদিও এখনো পর্যন্ত এই বিষয়টিকে আলোচনার মধ্যে রাখা হয়েছে।একবার এই বিষয়টি নিয়ে পর্যালোচনা করা হয়ে গেলে বিষয়টিকে কার্যকর করা হবে বেসরকারি সংস্থার ক্ষেত্রেও। যার ফলে অনেক বেসরকারি সংস্থার কর্মীরাও উপকৃত হবেন বলে জানা যাচ্ছে। প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী এটাও জানা যাচ্ছে যে এই প্রক্রিয়াটি অনেকটা ইপিএফের মতোই হবে যেখানে পেনশনের জন্য নাম তুলতে হবে সকলকে।

আর এটা অবশ্যই বাধ্যতামূলক হবে কিন্তু। আর এই পেনশন প্রক্রিয়াটি চালু করার পর তার অর্থ কর্মচারীদের বেতন থেকেই কাটা হবে যদিও কর্মচারীরা এক্ষেত্রে বেতন থেকে কেটে নেয়া অর্থের পরিমাণ নিজেরাই ঠিক করে নিতে পারবেন। এই বিষয়ে ফাইনান্স সেক্রেটারি রাজীব কুমার জানিয়েছেন খুব শীঘ্রই এই পেনশন স্কিম চালু হতে চলেছে দেশজুড়ে আর এই প্রক্রিয়া একবার চালু হলে দেশের লক্ষাধিক কর্মী এর ফলে উপকৃত হবেন।

এক্ষেত্রে বেতন থেকে সর্বনিম্ন 100 টাকা কেটে নেওয়া যেতে পারে আর ঠিক একই পরিমাণ অর্থ দেবে সংস্থা ।এমন অনেক কর্মী আছেন যারা তাদের পিএফ অ্যাকাউন্ট নিয়ে যথেষ্ট চিন্তিত থাকেন, এমনকি দেশের অনেক কর্মচারী রয়েছেন যারা পিএফ স্কিমের বিষয়ে পর্যন্ত সচেতন নন।এক্ষেত্রে কর্মীদের কেটে নেওয়া টাকা দুটি পর্যায়ে জমা হতে পারে বলে জানতে পারা গেছে প্রথমটি যেখানে প্রভিডেন্ট ফান্ড বা পিএফে আর অপরটির নাম হবে পেনশন স্কিম। যেখানে বেতনের 12% টাকা কাটা হলে তার 3.76% যাবে পিএফ অ্যাকাউন্টে আর 8.33% অর্থ যাবে ইপিএস ফান্ডে। তবে এক্ষেত্রে শর্ত হলো একটাই পিএফ এর অর্থ যখন খুশি তুলে নেওয়া যেতে পারে তবে পেনশন নিয়মের ক্ষেত্রে কিছু নির্দিষ্ট নিয়মাবলী থাকবে যেটিকে মানতে হবে সেসব কর্মীদের।