দেশনতুন খবরবিশেষ

লকডাউনের মধ্যে আবারও আগামী সপ্তাহের মধ্যে বড় ঘোষণা করতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি

40 দিনের বেশি হয়ে গেল সারা দেশজুড়ে চলছে লকডাউন। তবুও এখনো সারাদেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দিনে দিনে বেড়ে চলেছে। যেহেতু লকডাউনের ফলে সমস্ত কিছু বন্ধ রয়েছে তাই দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা কিছুটা হ্রাস পেয়েছে। আর এই অর্থনৈতিক ধাক্কা সামলানোর জন্য কিছু রিলিফ প্যাকেজ ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। পর পর তিন দফায় লকডাউন ঘোষণা করার ফলে দেশের আর্থিক অবস্থা ভেঙে পড়েছে বলে জানানো হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে।

ইন্ডিয়া টুডেতে প্রকাশিত এক রিপোর্ট অনুযায়ী জানানো হয়েছে, কয়েক সপ্তাহ আগেই কেন্দ্রীয় সরকারের এ বিষয়ে আলোচনা করা হয়ে গেছে। যদি এই কদিন করোনা সংক্রমণের আশঙ্কা খুব বেশি না বাড়ে তাহলে এই প্যাকেজ ঘোষণা করবে কেন্দ্রীয় সরকার। গত 2 মে এই সম্পর্কে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় বলে জানা গিয়েছে খবর সূত্রে। এই বিশেষ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর নির্মলা সীতারামন এবং দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

এরপর শুক্রবার কেন্দ্রে তরফ থেকে ঘোষণা করা হয় যে আর্থিক অবস্থার সামাল দিতে এই বিশেষ প্যাকেজ ঘোষণা করবে কেন্দ্রীয় সরকার। 22 শে এপ্রিল প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদি করোনা পরিস্থিতি নতুন আর্থিক প্যাকেজ ঘোষণা করেন। এমার্জেন্সির স্বাস্থ্যখাতে দেওয়া হয়েছে 15000 কোটি টাকা। কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে জানানো হয়েছে তিনটি পর্যায়ে এই টাকা খরচ করা হবে।কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর প্যাকেজের ঘোষণা করে বলেন, ভারতে যাতে দ্রুত করোনা না ছড়িয়ে পড়ে তার জন্য পরীক্ষা এবং চিকিৎসা সমস্ত রকম বন্দোবস্ত করা হয়।

চিকিৎসা এবং তার যাবতীয় প্রয়োজনীয় সামগ্রী সহ ওষুধের জন্য এই টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। এর পাশাপাশি আগামী দিনে যাতে এই করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে না পড়ে সেই দিকটি দেখার জন্য এই টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। এই টাকা গবেষণাগারেও কাজে লাগানো হবে বলে জানানো হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে। এই করোনা মহামারীর ক্ষেত্রে গবেষণা করার জন্য যাবতীয় খরচ এই বরাদ্দ টাকার মধ্যে থেকেই হবে। এটাও জানানো হয়েছে প্রত্যেকদিন টেস্টের পরিমাণ বাড়াচ্ছে ভারত।

এর আগে অবশ্য শিল্পের জন্য আর্থিক প্যাকেজ ঘোষণা করেছিল কেন্দ্রীয় সরকার। রিজার্ভ ব্যাংকের গভর্নর এই প্যাকেজ ঘোষণা করেছিলেন। এই প্যাকেজে ছোট শিল্পের কথা মাথায় রেখে 50,000 কোটি টাকার অনুদান দেওয়া হয়। এই পুরো টাকা নবার্ড, সিডবি এবং এন এইচ ডি মারফত দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে।

Related Articles

Back to top button