বাড়ানো হল কর্মীদের বেতন লকডাউনের সময় বড় ঘোষণা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির, এবার থেকে…

গোটা বিশ্ব জুড়ে এখন করোনা মহামারী ছড়িয়ে পড়েছে আর এবার আমেরিকাতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়ে গেল চীনকেও। বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে পাওয়া হিসেব বলছে, 82,404 জন মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন আমেরিকায়। যা ইতালির থেকেও বেশি।আর ভারতে এই মুহূর্তে এক মরণ ভাইরাস করোনার জেরে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে 724 জন আর এই ভাইরাসের জেরে ভারতে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে 17 জন। করোনা ঠেকাতে একের পর এক সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার এবং রাজ্য সরকার উভয়ই।

দুদিন আগে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে সারা দেশজুড়ে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে 21 দিনের জন্য। ফলে অনেকেই বলছিলেন এতে গরিব মানুষদের অসুবিধা সৃষ্টি হবে। তাই মধ্যবিত্ত পরিবারের কথা ভেবে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন একগুচ্ছ প্রকল্পের ঘোষণা করেন। এর ফলে গরিব দরিদ্র পরিবারগুলি একটু হলেও স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছে। লকডাউনের সিদ্ধান্তের পর গরিবদের কথা মাথায় রেখে চালু করা হয়েছে প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ যোজনা। এই পরিষেবায় কেন্দ্রের তরফ থেকে একাধিক পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

এছাড়াও রেশনে তিন মাস পুরো বিনামূল্যে মাথাপিছু 5 কেজি করে চাল বা গম এবং প্রত্যেক পরিবার পিছু এক কেজি করে ডাল পাবেন 80 কোটি মানুষ। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির দাবি, এই যোজনার ফলে বহু গরিব মানুষের সাহায্য হবে এই পরিস্থিতিতে।
প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ যোজনা ছাড়াও 100 দিনের কাজের যে মজুরি ছিল সেটি বাড়িয়ে 202 টাকা করার কথা বলেছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন।

তিন কোটি গরিব প্রতিবন্ধী, বিধবা এবং বয়স্কদের জন্য 1000 টাকা করে প্রতিমাসে দেওয়ার কথা বলা হয়েছে এদিন। এছাড়াও যে সমস্ত মহিলাদের জনধন অ্যাকাউন্ট রয়েছে তাদের প্রত্যেককে তিনমাস 500 টাকা করে দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে। এ ছাড়াও প্রাইভেট কর্মচারীদের জন্য বড় সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। এখানে বলা হয়েছে, 100 বা তার কম কর্মী আছে এমন কোম্পানি এবং 90% কর্মচারীর বেতন 15 হাজারের নীচে, তাদের হয়ে প্রাইভেট ফান্ডের 24% টাকা জমা দেওয়া হবে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে। কোন কর্মী চাইলে প্রভিডেন্ট ফান্ডের 50% বা তিন মাসের বেতনের টাকা একেবারে তুলতে পারেন।

8.3 কোটি বিপিএল পরিবারকে বিনামুল্যে গ্যাস দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। করোনা চিকিৎসা করার সময় যদি কোন দূর্ঘটনা ঘটে তাহলে ওই স্বাস্থ্যপরিসেবা সঙ্গে যুক্ত কর্মীদের জন্য 50 লক্ষ্য টাকার বিমা ঘোষণা করা হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে।

Related Articles

Back to top button