চাপ বাড়তে চলেছে মুকেশ আম্বানির সংস্থা Reliance Jio-র, Airtel-এ বড়োসড়ো বিনিয়োগ করতে পারে Google

টেলিকম কোম্পানির বাজারে জিও (Jio) কে টেক্কা দিতে এসে গেছে এয়ারটেল (Airtel) । জিওকে পিছনে ফেলতে এয়ারটেল সাহায্য পেতে পারে গুগলের এমনটা শোনা যাচ্ছে। ভারতের এই দ্বিতীয় বৃহত্তম টেলিকম কোম্পানি কে বিনিয়োগ করতে চলেছে টেক জায়ান্টটি। গুগল ইতিমধ্যেই কয়েক হাজার কোটি টাকা রিলায়েন্স জিও কে বিনিয়োগ করে ফেলেছে । এবার এয়ারটেলের ও পাশে দাঁড়াচ্ছে গুগোল । তাই একসাথে এই দুই টেলিকম কোম্পানির পাশে দাঁড়িয়ে বিনিয়োগ করে আয় বাড়াতে চাইছে গুগল।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে জানা যাচ্ছে প্রায় অনেকদিন ধরেই গুগল এবং এয়ারটেল এর মধ্যে বিনিয়োগ সংক্রান্ত কথাবার্তা চলছে। এবং বর্তমানে এটি একটি স্থির সিদ্ধান্তে পৌঁছেছে। শীঘ্রই এয়ারটেল এবং গুগলের একটি চুক্তি কথা শোনা যাবে। এতদিন পর্যন্ত গুগল জিও-র পাশে দাঁড়িয়ে এসেছে।ফলে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে উভয়ের পক্ষে সুবিধা হয়েছে ।

এবার থেকে এয়ারটেলের পাশেও গুগল দাঁড়ানোর কথা শোনা যাচ্ছে। ফলে দুই কোম্পানির মধ্যে চুক্তি স্থির হয়েছে । গুগলের সাথে এয়ারটেলের বিনিয়োগের ফলে জিও চাপে পড়েছে। কারণ এবার থেকে এয়ারটেল কে টেক্কা দিতে পারে রিলায়েন্স জিও। উভয় কোম্পানির শীর্ষ নেতৃত্ব বিনিয়োগ হওয়ার চুক্তি খতিয়ে দেখছে ।এয়ারটেল এবং গুগলের লিগল টিম চুক্তির দিকগুলো খতিয়ে দেখছে।

ভবিষ্যতে এগোনোর আগে বিনিয়োগের বিভিন্ন চুক্তি গুলি যাতে স্বচ্ছ থাকে সেই দিক গুলি দেখে নিতে সচেতন দুই কম্পানির শীর্ষ নেতারা। তবে ভিতরের খবর এখনো সঠিক জানা যাচ্ছে না। গুগল এবং এয়ারটেলের শীর্ষ নেতারা এই বিষয়ে বিশেষ কিছু মুখ খোলেননি । ডিটেলস সবকিছু জানা যাচ্ছে না এখনিই।তবে এই খবর যদি সত্যিই সঠিক হয় তাহলে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলবেন সুনীল মিত্তাল।

টেলিকম বাজারে জিওর যেমন আধিপত্য তার সঙ্গে পাল্লা দিতে গেলে এক মজবুত কোম্পানির প্রয়োজন। এখন এই পরিস্থিতিতে যদি এয়ারটেল কোমর বেঁধে নামে তাহলে জিও কে ব্যাকফুটে চলতে হবে । জিওর জয়যাত্রা কে থামাতে হলে এয়ারটেলের প্রয়োজন সামনে আসার। তবে এই পরিষেবার উন্নতিকরণের জন্য কোম্পানির প্রয়োজন বিপুল অর্থের। এবং এই অর্থের জোগান দিতে পারে গুগল । সেক্ষেত্রে এয়ারটেলের অনেকটাই সুবিধা হবে।