পোস্ট অফিসে দুর্দান্ত স্কিম! মাত্র 95 টাকা দিয়ে এখন পেয়ে যাবেন 14 লক্ষ টাকা, কীভাবে পাবেন? বিস্তারিত জানতে

আমাদের মধ্যবিত্ত ঘরের মানুষদের অল্প বয়সে সঞ্চয়ের ওপরই বৃদ্ধ বয়সের খরচ চলে। তাই এই মধ্যবিত্ত ঘরের মানুষদের ইচ্ছা স্বল্প বিনিয়োগ করে মোটা টাকার উপার্জন করা। আর সেই সুযোগ এনে দিয়েছে পোস্ট অফিস। পোস্ট অফিস তার গ্রাহকদের জন্য নিয়ে এসেছে স্বল্প ব্যয়ে স্বল্প সময়ের মধ্যে মোটা টাকা রিটার্ন পাওয়ার সুবিধা।

গ্রাম সুমঙ্গল গ্রামীণ ডাক জীবন বিমা- গ্রাম সুমঙ্গল স্কিমটি হল পল্লী ডাক জীবন বীমা প্রকল্পটির আওতাধীন। এটি প্রথম চালু হয় ১৯৯৫ সালে ৷ এই প্রকল্পের অধীনে আরও পাঁচটি বীমাকে যুক্ত করা হয়েছে। এসকিমি প্রতিদিন ৯৫ টাকা করে বিনিয়োগ করে আপনি ১৪ লক্ষ টাকা উপার্জন করতে পারবেন।

স্কিম টি ১৫ -২০ বছরের জন্য করা যায়। তবে আপনার আসল টাকা ম্যাচিওর হওয়ার আগেই তিনবার আপনি টাকা ফেরত পাবেন। আবার যদি কোন পলিসি হোল্ডারের মৃত্যু ঘটে সে ক্ষেত্রে পলিশের টাকার সাথে বোনাসও দেওয়া হয়।

RBI এর তরফে ATM থেকে টাকা তোলার নিয়ম আসছে পাঁচটি বড়ো পরিবর্তন, প্রভাব ফেলবে জনজীবনে

যে কোন ভারতীয় নাগরিক এই প্রকল্পের সুবিধা পেতে পারেন। এই প্রকল্পের জন্য পলিসি হোল্ডারের বয়স সর্বনিম্ন ১৯ বছর এবং সর্বোচ্চ বয়স ৪৫ হতে হবে। এর কম বা বেশি বয়স হলে চলবে না। ১৫-২০ বছরের জন্য পলিসিটি করা হলে গ্রাহকের বয়স ৪০ বছর নির্ধারণ করা হয়। আর এর ফলে গ্রাহক এই পলিশির মাধ্যমে ২০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারেন।

মনে করুন ২৫ বছরের এক ব্যক্তি ৭ বছরের জন্য এই পলিসি’টা কিনেছেন। তখন ওই ব্যক্তিকে বছরে ৩২৭৩৫ টাকা প্রিমিয়াম দিতে হবে। ত্রৈমাসিক প্রিমিয়ামটি থেকে আসবে ১৬৭১৫ টাকা। অপরদিকে ত্রৈমাসিক প্রিমিয়াম হবে ৮৪৪৯ টাকা। তার মানে প্রতিদিন ৯৫ টাকা করে এই প্রিমিয়াম এর জন্য জমা করতে হবে। এই স্কিমটি ২০ বছরের করা হয়। আপনাকে ২০-২০ শতাংশ হারে অষ্টম, দ্বাদশ এবং ১৬ তম বছরে ১.৪-১.৪ লক্ষ টাকা দেওয়া হয়।

এই প্রকল্পের জন্য সরকার এই প্রকল্পের গ্রাহকদের বছরে ৪৮ হাজার টাকা করে বোনাস দেয়। অ্যাসিওর্ডের জন্য ১ লক্ষ টাকা বোনাস পাওয়া যায় ৩৩৬০০ টাকা। অর্থাৎ ২০ বছরে পাওয়া যাবে ৬.৭২ লাখ টাকা। ২০ তম বছরে, আপনি পেতে পারেন ২.৮ লক্ষ টাকাও। সমস্ত অর্থ যোগ করে ২০ বছরে মোট ১৯.৭২ লক্ষ টাকা আয় হতে পারে।