দেশ থেকে চুরি হয়ে যাওয়া ১৫৭ টি পুরানো সামগ্রী “রিটান গিফট” হিসাবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে আনছেন প্রধানমন্ত্রী

তিন দিনের সফরে আমেরিকা গিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আমেরিকার প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের আমন্ত্রণে আমেরিকা গিয়েছেন তিনি। বৃহস্পতিবার ওয়াশিং টন ডিসির জয়েন্ট বেশ এন্ড্রুজে নামে ইয়ার ইন্ডিয়া ওয়ান। এতে চেপে মোদিজী আমেরিকায় আসেন। প্রধানমন্ত্রী কে বিমানবন্দরের স্বাগত জানাতে হাজির ছিলেন বাইডেন প্রশাসনের কর্মকর্তারা এবং আমেরিকায় ভারতের রাষ্ট্রদূত ত্বরণজিৎ সিং সান্ধু। এই সফরে নরেন্দ্র মোদির বিভিন্ন কর্মসূচি ছিল। সেগুলি হল-

১| সফরের প্রথম দিনেই অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন এবং জাপানের প্রধানমন্ত্রী ইউশিহিদের সুগারের সঙ্গে বৈঠক।

২| এছাড়া কয়েকজন শিল্পপতির সঙ্গে বৈঠক।

Advertisements

৩| আমেরিকার ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসের সঙ্গে বৈঠক।

Advertisements

৪| মোদি-বাই ডন দ্বিপাক্ষিক বৈঠক।

৫| কোয়ার্ড ভুক্ত দেশ গুলির নেতাদের মধ্যে বৈঠক।

৬| রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ অধিবেশনে ভাষণ।

আর এই সফর শেষ করে দেশে ফিরবেন আগামী শনিবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বন্ধু দেশ থেকে ফিরে আসার সময় বেশ কিছু উপহার আনছেন প্রধানমন্ত্রী। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এর দেওয়া এই উপহারের প্রশংসাও করেন মোদীজি।

ভারত থেকে চুরি যাওয়া বা চোরাচালান হিসাবে আমেরিকায় পাচার হয়ে যাওয়া ১৫৭ টি প্রত্নসামগ্রী ও পুরাকীর্তি (Artefacts and Antiquities) দেশে ফিরিয়ে আনছেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। এই সামগ্রী আবারো ফিরে যাবে দেশে সম্পত্তির ভান্ডারে।

জানা গিয়েছে এই সকল শিল্পকর্মগুলো ১১ থেকে ১৪ তম খ্রিস্টাব্দে তৈরি করা হয়েছিল। যার মধ্যে একটি সাংস্কৃতিক নিদর্শন এবং বাকি গুলি হল মূর্তি। এর মধ্যে হিন্দু ধর্মের ৬০টি, বৌদ্ধ ধর্মের ১৬ টি এবং জৈন ধর্মের সঙ্গে জড়িত ৯টি মূর্তি বা পুরাকীর্তির রয়েছে।যা ধাতু, পোড়ামাটি, পাথর, ব্রোঞ্জের তৈরি মূর্তি।

এর মধ্যে রয়েছে নটরাজ, ২৪ তীর্থ কংশী, দ্বাদশ শতাব্দীর তীর্থঙ্কসী এবং ব্রোঞ্জের তৈরি বিষ্ণু, শিবের প্রধান মূর্তি, লক্ষীনারায়ন, বিষ্ণুমূর্তি ও পাওয়া গিয়েছে। আমেরিকা থেকে এই সমস্ত প্রাচীন ঐতিহ্য ফিরে পেয়ে বন্ধু বাইডেনকে প্রধানমন্ত্রী অসংখ্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন। পাশাপাশি বাইডেনকে অবাধ চুরি বন্ধ করার বিষয়ে করা পদক্ষেপ নেওয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন। প্রাপ্ত শিল্পকর্মগুলোর মধ্যে পাওয়া গেছে ১০ শতকের রেভান্তার বেস রিলিফ প্যানেল থেকে শুরু করে ১২ শতাব্দীর তৈরি বেলেপাথরের নটরাজ মূর্তি,যার উচ্চতা প্রায় ৮.৫ সেন্টিমিটার।