দেশনতুন খবরভারতীয় সেনারাজনৈতিক

এটা নতুন ভারত সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবে ও তাদের দমনে সর্বদা তৎপর থাকবে!কন্যাকুমারীর জনসভা থেকে বার্তা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর।

কন্যাকুমারী এর জনসভা থেকে প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদী তুলে ধরলেন 26/11 কথা যেখানে তিনি বললেন সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে আগে সরকার কি পদক্ষেপ নিয়েছিল? কিন্তু এবারের সরকার আগের তুলনায় অনেক খানি অ্যাক্টিভ তার উদাহরণ স্বরূপ আপনার উরিতে হওয়া হামলায় নিজে দেখেছেন কিভাবে আমাদের বাহাদুর সেনারা তার জবাব দিয়েছিল। আর কিছুদিন আগে ঘটা কাশ্মীরে পুলওয়ামায় হামলার জবাব কিভাবে ভারতীয় বায়ুসেনা বাহিনী পাকিস্তানের জঙ্গী ঘাঁটিগুলো কে উড়িয়ে দিয়েছিল।আর আজ পাকিস্তানকে চাপ দিয়ে বায়ুসেনা পাইলট অভিনন্দন বর্তমানকে ফিরিয়ে আনতে পেরেছে ভারত। ভারতীয় উইং পাইলট অভিনন্দনের কৃতিত্বে সরব হলেন প্রধানমন্ত্রী মোদী।

 

 

প্রধানমন্ত্রী বলেন এটা নতুন ভারত এ ভারত সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবে এবং তাদের পাল্টা জবাবও দেবে।কন্যাকুমারীর সভায় প্রধানমন্ত্রী বলেন, গোটা দেশের গর্ব উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমান। তামিলনাড়ুর বাসিন্দা অভিনন্দন। এর জন্য এ রাজ্যের গর্ব হওয়া উচিত। পাশাপাশি দেশকে প্রথম মহিলা প্রতিরক্ষা মন্ত্রী দিয়েছে এরাজ্যে। এর জন্যও দেশকে গর্বিত করেছে তামিলনাড়ু।কাশ্মীর সীমান্ত এলাকায় সন্ত্রাস এর কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন বহুদিন ধরে ভারত এই সন্ত্রাসের শিকার হয়েছে। কিন্তু অতীতের সঙ্গে বর্তমানে অনেক বড় একটা পার্থক্য রয়েছে যার দরুন এই নতুন ভারত কারো কাছে মাথা নত করবে না। দেশ এখন এই সন্ত্রাসবাদীদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নেবে। তবে আপনাদের বলে রাখি দেশের কিছু রাজনৈতিক দল এখনও পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির এই পদক্ষেপ কে সমর্থন করছেন না।

তারা ক্রমশই প্রধানমন্ত্রী বিরোধিতা করে চলেছেন এবং সেনাবাহিনীর উপর ও প্রশ্ন তুলতে ছাড়ছেন না। এই দিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি জনসাধারণকে মনে করিয়ে বলেন উরি হামলার পর দেশবাসী দেখেছিল আমাদের দেশের সাহসী সেনারা কি করতে পারে। আর পুলওয়ামায় ঘটে যাওয়া জঙ্গি হামলা পরে ভারতীয় বায়ুসেনাও দেখিয়ে দিল তাদের ক্ষমতা।তিনি আরো বলেন 2004 সাল থেকে 2014 সাল পর্যন্ত এর আগেও দেশের মধ্যে জঙ্গি হামলা হয়েছে কিন্তু দেশের সাধারন মানুষ শুধু আশায় করেছিল যে এই ঘটনার পেছনে মূল অভিযুক্ত দের শাস্তি দেওয়া হবে কিন্তু। তা হয়নি। তবে এবার থেকে এই ঘটনার অবসান ঘটলো এবার ভারত কোন প্রকার সন্ত্রাসবাদী হামলা কে মেনে নেবে না রুখে দাঁড়াবে সমস্ত প্রকার সন্ত্রাস এর বিরুদ্ধে।

 

এই বিষয়ে আরও নতুন খবরের আপডেটের জন্য চোখ রাখুন আমাদের ফেসবুক পেজ দ্যা ইন্ডিয়া নিউজে।

Related Articles

Back to top button