রাষ্ট্রপতি পুতিনের বড় ঘোষণা, এবার ভারতেই মিসাইল সিস্টেম তৈরি করবে রাশিয়া

এ কথা হয়তো অনেকেই জানেন যে দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দু’দিনের জন্য রাশিয়ার সফরে গিয়েছেন। আজ বুধবার দিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী রাশিয়ার Vladivostok শহরে পৌঁছান, আর এখানেই তিনি রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিনের সাথে সাক্ষাৎকার করেন।তবে শুধু সাক্ষাৎকার করেন বললে এটা ভুল হবে কারণ এই দিন রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন বলেন যে আজ ভারতের সাথে রাশিয়ার কিছু প্রতিরক্ষা বাণিজ্যিক, কিছু পরমাণু শক্তির ও আর্থিক দিক থেকে কয়েকটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে।

এদিন রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভারতের সকল কোম্পানি গুলোকে স্বাগত জানিয়েছে রাশিয়ায়। এদিন তিনি দাবি করে বলেন ভারতের সাথে রাশিয়ার বহুদিন ধরে হাতিয়ার নিয়ে অনেক ভালো সম্পর্ক রয়েছে।আর সেই সম্পর্ক টিকে আরও মজবুত করে তুলতে আগামী দিনে আমরা ভারতে রাইফেল আর মিসাইল সিস্টেম বানানোর পদক্ষেপ নেবো। এই দিন প্রধানমন্ত্রী মোদির সাথে সাক্ষাৎ হওয়ার পর রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি পুতিন নরেন্দ্র মোদীর প্রশংসায় ভরিয়ে দেন।

তিনি বলেন ওনার মত প্রকৃত বন্ধুকে স্বাগত জানাতে সব সময় প্রসন্নতার হয়। রাশিয়া আর ভারতের সম্পর্ক অনেক গুরুত্বপূর্ণ।এছাড়া তিনি আরো বলেন যে আমি সব সময় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সাথে যোগাযোগ থাকি এছাড়া এমন অনেক বিষয় আছে যেগুলো নিয়ে আমাদের মধ্যে প্রায় কথাবার্তাও হয়। আর আমার এটা আশা আছে যে দুই দেশ একে অপরের ইস্যু নিয়ে একেঅপরের সহযোগিতা ও করবে। অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, ইস্টার্ন ইকোনমিক ফোরামে উনাকে আমন্ত্রণ করার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ জানান পুতিনকে। তিনি বলেন ভারত ও রাশিয়া দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কে এই সময় যখন শিখরে নিয়ে যাওয়া যাবে। আমি ইকোনমিক ফোরামে অংশ নেওয়ার জন্য অনেক অপেক্ষা করছি। আর এইবার ভারত ও রাশিয়ার বন্ধুত্ব এক নতুন ইতিহাস লিখবে।

অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে রাশিয়ার সবচেয়ে বড় নাগরিক সম্মান দিয়ে সম্মানিত করা হবে। এই বিষয় প্রধানমন্ত্রী বলেন এই সম্মানের জন্য আমি রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি পুতিনকে অসংখ্য ধন্যবাদ জানাই।তিনি আরো বলেন দুই দেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের জন্যই আজ আমরা এই জায়গায় আছি। আর এটা 130 কোটি ভারতীয়র কাছে গর্বের বিষয়।