মার্কিন সমীক্ষায় আবারো মোদির জয় জয়কার, বাইডেন জনসন কে পিছনে ফেলে এগিয়ে নমো

মার্কিন সংস্থা ‘মর্নিং কলসাল্ট’ একটি তথ্য বিশ্লেষণ এর কাজ করে। এই বিশ্লেষণের মাধ্যমে প্রকাশ করা হয় বিশ্বের সবথেকে জনপ্রিয় নেতা কে। সমীক্ষার ফল হিসাবে দেখা যাচ্ছে বিশ্বের সবথেকে জনপ্রিয় নেতা নরেন্দ্র মোদী। ৭০ শতাংশ সমর্থনে মোদী পিছনে ফেলেছে জো বাইডেন, অ‌্যাঞ্জেলা মর্কেল, বরিস জনসন, জায়ের বলসোনারো, ম‌্যাক্রোর মতো রাষ্ট্রনেতাদের। এই সংস্থা কয়েকশো কোটি ডলারের সংস্থা। প্রত্যেক সপ্তাহে এরা গোটা বিশ্বের ১৩টি দেশের রাষ্ট্রপ্রধানদের জনপ্রিয়তাও পরিমাপ করে।

সম্প্রতি এই সমীক্ষার ফল প্রকাশ হয়েছে শনিবারে। এই সমীক্ষা হিসাব অনুযায়ী দেখা যাচ্ছে সবথেকে বেশি সমর্থনে এগিয়ে আছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। মোদীর পরবর্তী স্থানেই রয়েছে মেক্সিকোর রাষ্ট্রপতি লোপেজ ও’ব্র‌্যাডর। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে সমর্থন করেছেন ৭০ শতাংশ মানুষ। ৬৪ শতাংশ মানুষ সমর্থন করেছেন লোপেজকে।

তৃতীয় স্থানে রয়েছেন ইটালির প্রধানমন্ত্রী মারিও দ্রাঘি। চার নাম্বারে রয়েছেন জার্মানির চ‌্যান্সেলর অ‌্যাঞ্জেলা মর্কেল। তাকে সমর্থন করেছেন ৫২ শতাংশ মানুষ। ৪৮ শতাংশ মানুষের সমর্থনে একেবারে পিছনে পড়ে গেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। জো বাইডেনের জনসমর্থন যে শুধুমাত্র আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা প্রত‌্যাহারের সিদ্ধান্তই যে তার জনসমর্থন কমিয়ে দিয়েছে সেটা নিয়ে কোন সংশয় নেই।

৪১ শতাংশ জনসমর্থন নিয়ে সপ্তম স্থানে রয়েছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। সর্বশেষ অষ্টম স্থানে রয়েছেন ৩৯ শতাংশ সমর্থনে রয়েছেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট বলসোনারো।এই সমীক্ষায় সর্বমোট ৭০ শতাংশ জনসমর্থন পেলে সমীক্ষায় ধরে নেওয়া হয়, গোটা বিশ্বের ৭০ শতাংশ মানুষ মোদী সরকারের নীতিগুলি সমর্থন করছেন।

তবে এই সমীক্ষার পরে বহু প্রশ্ন উঠেছে যে কী করে হঠাৎ প্রধানমন্ত্রীর জনপ্রিয়তা এতটা বেড়ে গেল? সমীক্ষক সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, প‌্যারালিম্পিকে মোদী ভারতীয় ক্রীড়াবিদদের সাফল্যের পাশে যেভাবে মোদী সরকার দাঁড়িয়েছে সেই কারণেই হঠাৎ মোদীর জনপ্রিয়তা বাড়াতে সাহায্য করেছে।