আবার ক্ষমতায় এলে পাকিস্তানের নকশাই বদলে দেবেন নরেন্দ্র মোদি দাবি কেন্দ্রীয় মন্ত্রী…

ভারতের ভবিষ্যৎ হলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।যদি তিনি 2019 সালে ফের ক্ষমতায় আসেন তবে পাকিস্তানের নকশায় বদলে দেবেন এমনটাই মন্তব্য করলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মহেশ শর্মা।এই দিন তিনি মন্তব্য করেন ভারতের ভবিষ্যত কে বদলে দেবার ক্ষমতা রাখেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সোমবার দিন উত্তর প্রদেশের সিকান্দ্রাবাদের এক জনসভায় মহেশ শর্মা বললেন দেশের উন্নতির জন্য কোন কাজ করেনি কংগ্রেস আজ পর্যন্ত। প্রয়োজন বোধ হলে ইতিহাস দেখতে পারেন শুধু ব্যর্থতা রয়েছে তাদের জন্য। কিন্তু মোদি সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে দেশের নাম উজ্জ্বল করেছেন সিংহের মতো। আর তিনি যদি দ্বিতীয়বারের জন্য প্রধানমন্ত্রী হন তাহলে পাঁচ বছরের দেশকে নতুন দিশা দেখাতে পারবেন নরেন্দ্র মোদি।

এদিন তিনি কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী কে কটাক্ষ করে বলেন পাপ্পুর সঙ্গে এবার যোগ হতে চলেছে পাপ্পির। এখানে পাপ্পি বলতে তিনি প্রিয়াঙ্কা গান্ধী কে বলতে চেয়েছেন। তিনি বলেন এখন মায়াবতী, অখিলেশ, পাপ্পু, পাপ্পি সবাই প্রধানমন্ত্রী হতে চাইছে।তিনি এই দিন প্রশ্ন তুলেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর উপরে এবং বলেন কংগ্রেসের ঘরের মেয়ে কি তিনি ছিলেন না প্রিয়াঙ্কা, সে কী আগে দেশের মেয়ে ছিল না? তবে রাজনীতিতে এসে নতুন করে কি করলেন বলে প্রশ্ন করেন তিনি। দেশে ভোট আসন্ন আর সাতদফা তে হতে চলবে এবারের নির্বাচন প্রক্রিয়া উত্তরপ্রদেশে ও। তাই ভোট প্রচারে এবার অভিনবত্ব ছাপ রেখে কর্মীদের মন জয়ের আশায় রয়েছে কংগ্রেস প্রার্থীরা ‌। আর এখনো পর্যন্ত যা খবর আসছে তাতে জানতে পারা গেছে এবার নাকি প্রিয়াঙ্কা গান্ধী নৌকায় চেপে সাধারণ মানুষের কথা শুনবেন। আর এই প্রচারের নাম দেওয়া হয়েছে “বোট পে চর্চা”। তেবে এই নিয়ে এখন উৎসাহ তুঙ্গে। প্রিয়াংকার এই প্রচারের উদ্যোগ কে বিজেপি নেতারা কটাক্ষ করতে ছাড়েনি।

আপনারা কি মনে করেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর নেওয়া এই নতুন প্রচারের উদ্যোগ টি সফল হবে এই বিষয়ে আপনাদের মতামত আমাদের জানান। আরো এরকম নতুন নতুন খবরের আপডেট পেতে চোখ রাখুন আমাদের ওয়েব পোর্টালটি তে।