আমার সন্মানে পাঁচ মিনিট দাঁড়ানোর বদলে একটি অসহায় পরিবারের পাশে দাঁড়ানঃ প্রধানমন্ত্রী মোদী

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে(Narendra Modi) সম্মান জানাতে 5 মিনিটের জন্য উঠে দাঁড়ান এরকম এক বার্তা গোটা  সোশ্যাল মিডিয়া (social media)জুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে। প্রসঙ্গত যেমনটা আমরা দেখতে পাচ্ছি অন্যান্য দেশের তুলনায় ভারত কিন্তু করোনা মোকাবিলায় অনেক ভালো সাফল্য লাভ করেছে, অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এই মহামারীর বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য দৈনন্দিন সামগ্রিক উপলব্ধ করার সাথে সাথে স্বাস্থ্য কর্মী, পুলিশ কর্মী, সাফাই কর্মীদের উৎসাহ করছেন।

তবে এবার এই পাঁচ মিনিটের জন্য দাঁড়িয়ে নরেন্দ্র মোদির সম্মান করার এই বার্তা পৌঁছালো খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কানে। যে বিষয় নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদি টুইট করে জবাব ও দিলেন। এইদিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তার টুইটার অ্যাকাউন্টে এই বিষয়ে টুইট করতে গিয়ে লিখেন জানতে পারলাম কেউ যেন প্রচার করছে আমাদের সম্মান জানাতে 5 মিনিট দাঁড়িয়ে থাকতে হবে। মনে হল আমাকে বিতর্কে জড়ানোর জন্যই এমন এক ফন্দি করা হচ্ছে।
https://twitter.com/narendramodi/status/1247848709527711749?s=19

তবে যদি এটা কোনো সত্যিই শুভাকাঙ্খী হয় তাহলে আমি তাদের বলবো এমন কিছু করার প্রয়োজন নেই বরং যদি আমার প্রতি তারা শ্রদ্ধা এবং ভালোবাসা দেখাতে চায় তাহলে এই মহামারী করোনার পরিস্থিতিতে অন্তত একটি গরিব পরিবারের দায়িত্ব নিন। এই চেয়ে ভালো ভাবে আমাকে সম্মান জানানোর আর কিছু হতে পারে না। 21 দিনের লকডাউন এর জেরে এমন অনেক গরিব মানুষ রয়েছেন তাদের জীবন এখন স্বাভাবিক থেকে বিপন্ন।

বিশেষজ্ঞদের মত অনুযায়ী এখনো পর্যন্ত করোনা মোকাবেলা তে বাড়িতে বসে থাকা ছাড়া আর কোন উপায় নেই আর সেই কারণে বারবার জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেওয়ার সময় দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সে কথা বারবার মনে করিয়ে দিয়েছেন এবং দেশবাসীকে ঘরে থাকার অনুরোধ জানিয়েছেন। এর পাশাপাশি এই করোনা পরিস্থিতিতে যারা নিয়মিত কাজ করে যাচ্ছেন সেসব চিকিৎসক, কর্মীদের হাততালি দিয়ে সম্মান জানানোর আহ্বান জানিয়েছেন। আবার কখনো 9 মিনিটের জন্য বাড়ির আলো বন্ধ করে প্রদীপ, মোমবাতি জ্বালিয়ে শক্তি জাগরণের ডাক দিয়েছেন তিনি।

আর প্রত্যেক ক্ষেত্রেই মিলেছে দেশবাসীর সাড়া। তাই সেই কারণে আবার হয়তো তার সম্মান জানানোর জন্য এমন এক বার্তা দিলেন তিনি সোশ্যাল মিডিয়াতে। এমনটা হতে পারে কোন ব্যক্তি হয়তো মজা ছলনায় এমনটা বলেছেন তবে সেই ব্যাক্তির খোঁজ না মিললেও মোদি তার বার্তাকে ঢাল করে ফের একবার মানুষকে একজোট হয়ে লড়াইয়ের আহ্বান জানালেন।তবে দেশে এই মুহূর্তে যেরকম সংকটজনক পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে তার জেরে কেন্দ্র সরকার সহ রাজ্য সরকারগুলি ও আর্থিক সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে দেশের জনগণের দিকে।

শুধু সরকারই নয় আবার অনেক আর্থিক দিক থেকে সক্ষম মানুষেরা এই সময় দুস্থ পরিবারের পাশে দাঁড়িয়ে তাদের মুখে অন্ন তুলে দিয়েছেন যাদের এরকম এক সাহসী পদক্ষেপের জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তাই এবারও তিনি এই করোনার প্রকোপ না কাটা পর্যন্ত অন্তত একটি গরিব পরিবারের দায়িত্ব তুলে নেওয়ার আহ্বান জানালেন তাহলে এই লড়াইয়ে জয় আসবে এমনটাও তিনি জানালেন।

Related Articles

Close