অভিনব পদক্ষেপ গ্রহণ করতে চলেছে কেন্দ্র, ফের কমতে পারে পেট্রোল-ডিজেলের দাম

ক্রমাগত বাড়তে থাকা পেট্রোল-ডিজেলের দাম একসময় আমাদের প্রত্যেক দিনের চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছিল, কারণ কোথাও-না-কোথাও আমরা স্কুটি অথবা বাইক ছাড়া বাড়ি থেকে বেরোনোর কথা ভাবতে পারি না। পায়ে হাঁটা তো দূরের কথা, ন্যূনতম সাইকেলে করেও যাতায়াত করি না আমরা।

তবে সম্প্রতি দীপাবলীর আগের রাতে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে পেট্রোল এবং ডিজেলের উপর থেকে কমানোর সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করা হয়েছিল। এই কথা ঘোষণা করার পর থেকে শুরু হয়েছিল রাজনৈতিক তরজা। পশ্চিমবঙ্গ সহ বেশ কয়েকটি বিজেপি বিরোধী রাজ্যগুলি না কমানোর সিদ্ধান্ত নেয়।

এই সবকিছুর মধ্যে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে আরো একবার জ্বালানির দাম কমানোর একটি অভিনব পদক্ষেপ নেওয়া হলো। মঙ্গলবার দিল্লিতে কেন্দ্রীয় পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী বৈঠক করেছিলেন এই বিষয়ে। এই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন তেল বিপণন সংস্থাগুলির আধিকারিকরাও।

সূত্র মারফত খবর পাওয়া গেছে, বৈঠকের পর ৫০ লাখ অপরিশোধিত তেল ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র।বিশ্বের সবথেকে বেশি তেল ব্যবহারকারী দেশ যেমন জাপান, আমেরিকা চীন এবং কোরিয়ার সঙ্গে কথা বলার পর এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। যদিও এর ফলে জ্বালানির দাম কমে গেলেও তা দীর্ঘস্থায়ী হবে না বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

পরিশোধিত প্লেনের সরবরাহ কমে গেলে জ্বালানির দাম বৃদ্ধি পাবে ব্যাপকহারে, পাশাপাশি বৃদ্ধি পাবে অন্যান্য জিনিস পত্রের দাম। এ ক্ষেত্রে ৫০ লক্ষ ব্যারোল অপরিশোধিত তেল ছাড়া হলে সৌদি আরবের মতো দেশগুলির ওপর বাড়তি চাপ দেয়া যেতে পারে। তাই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে আমেরিকা চীন এবং জাপান সহ একাধিক দেশ।