একবার ফের বড় বিপাকে পড়ল পাকিস্তান, এখন ওই দেশে দুধের চেয়ে সস্তায় পাওয়া যাচ্ছে পেট্রোল ডিজেল

দিনদিন চরম মূল্য বৃদ্ধি সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে পাকিস্তান আর সেখানে খাওয়া-দাওয়া জিনিস থেকে শুরু করে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের দাম দিন দিন বেড়েই চলেছে। জিনিসের দাম আকাশ ছোঁয়াতে মাথায় হাত দিয়েছে সেখানকার সাধারণ জনগণ। এমন কী এখন সেখানে দুধের চেয়েও সস্তা দামে পাওয়া যাচ্ছে পেট্রোল ডিজেল। গত মাসে পাকিস্তানের পেট্রোলের দাম ছিল 117.83 টাকা প্রতি লিটার এবং ডিজেলের দাম ছিল 132.47 টাকা প্রতি লিটার।

তবে পাকিস্তানের বর্তমানে দুধের নাম হয়েছে প্রতি লিটার 140 টাকা করে। এতদিন তো পাকিস্তানের মানুষ গাড়ি চালানো নিয়ে সমস্যায় পড়েছিল তবে এবার থেকে বাচ্চাদের কী খাওয়াবে সেটা এখন তাদের কাছে বড় সমস্যার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। তবে পাকিস্তানে দুধ এবং নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম প্রথম থেকেই বেড়েছিল তারপর আবার মহরমের মরসুম আসার পরে জিনিসের দাম যেন আকাশ ছুঁয়েছে তাদের। দেশের সবচেয়ে বড় শহর করাচি আর সিন্ধু প্রান্তে দুধের দাম 140 টাকা প্রতি কেজি হয়েছে।


পাকিস্তানি এক সংবাদমাধ্যম এক্সপ্রেস ট্রিবিউনের রিপোর্টে বলা হচ্ছে যে ডেয়ারি মাফিয়া” মহরম এর উৎসবে দুধের দাম বাড়িয়ে পাক নাগরিকদের লুটে নিচ্ছে। মহরমের দিনে মানুষের খাওয়ানর জন্য দুধ, শরবত, ক্ষীর দেওয়া হয়। আর এর মধ্যে ডেয়ারি মাফিয়ারা দুধের দাম বাড়িয়ে মানুষের আনন্দকে কেড়ে নিচ্ছে। অন্যদিকে পাকিস্তানের সরকার পেট্রোল আর ডিজেলের দাম ক্রমবর্ধমান বৃদ্ধিতে মানুষকে স্বস্তি দেওয়ার জন্য সেপ্টেম্বর মাসে পেট্রোল-ডিজেলের দাম কে 4.59 টাকা এবং 5.33 টাকা হ্রাস করায়। কিন্তু এরপরে পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম হয় 113.24 টাকা 127.42 টাকা, তবে সেটাও সাধারণ মানুষের কাছে অনেক বড় ব্যাপার। তবে আবার সেটা পাকিস্তানের মতো দেশের কাছে কারণ তারা প্রথম থেকেই আর্থিক দিক থেকে ভুগছে তাদের আর্থিক অবস্থা খুব একটা ভালো যাচ্ছে না তাই তাদের কাছে এটাও একটা অনেক বড় ব্যাপার।

Related Articles

Close