পুলওয়ামায় জঙ্গী হামলা নিয়ে প্রাক্তন ক্রিকেটার শোয়েব আকতার করলেন ভারতকে সমর্থন, পাকিস্তানের মুখে মারলেন থাপ্পর।

কাশ্মীরের পুলওয়ামাতে 14 ই ফেব্রুয়ারি সিআরপিএফ কনভয়ের উপর সন্ত্রাসবাদীরা আত্মঘাতী হামলা চালায়। এই হামলায় 40 জনেরও বেশি জওয়ান শহীদ হয়েছে। সিআরপিএফের কনভয়ে যেখানে 2500 বেশি সেনা ছিল সেখানে সুরক্ষা বলে ভারতীয় সেনা দুটি গাড়ি কে টার্গেট করে এই জঙ্গিরা। এই ঘটনার দায় স্বীকার করেছে পাকিস্তানের জইশ-ঈ-মহম্মদ নামক জঙ্গি গোষ্ঠী। এই ঘটনার পর থেকে পাকিস্তানের উপর ক্ষোভে ফেটে পড়েছে সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে ক্রিয়া যগৎ, নেতা, অভিনেতারাও। বর্তমান ক্রিকেটার হরভজন সিং থেকে শুরু করে প্রাক্তন ক্রিকেটার সৌরভ গাঙ্গুলী, চেতন চৌহানের মতন প্রাক্তন ক্রিকেটার রাও এই ম্যাচ বয়কট করার সিদ্ধান্ত দিয়েছে বিসিসিআই কে।

 

 

এরই মধ্যে পাকিস্তানের প্রাক্তন পাকিস্তানি ক্রিকেটার শোয়েব আকতার একটি বিশেষ বয়ান দিয়েছেন। এই বয়ানে তিনি বলেন, ভারতের বিশ্বকাপের ম্যাচ থেকে সরে দাঁড়ানোর অধিকার রয়েছে। এই প্রাক্তন পাকিস্তানি ক্রিকেটার পাকিস্তানি মিডিয়ার সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে বলেন, ” বিসিসিআই পাকিস্তানের সঙ্গে খেলতে চায় কিন্তু সরকার তাদের অনুমতি দিচ্ছে না। যদি ভারত পাকিস্তানের সাথে খেলে তাহলে স্টার স্পোর্টস এবং বিসিসিআই এর ভালো রোজগার হবে। ওরা খুব কম হলেও 600 মিলিয়ন ডলার কামাতে পারবে। এ নিয়ে কোন সন্দেহ নেই যে ওরা আমার সাথে খেলতে চাই। আমাদের পাকিস্তানি বোর্ড উল্লেখ করেছিল যে, আমরা একটি দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলতে চাই আর এই সিরিজের প্রস্তাব কোন আলাদা জায়গায় করা হবে, কিন্তু ওরা বলে যে ওদের কাছে চালানোর জন্য একটি বোর্ড রয়েছে যা সুপ্রিম কোর্টের মধ্য অন্তর্গত।

Advertisements

Advertisements

এটাই ওদের যুক্তি আর এই যুক্তিকে বোঝা যেতে পারে তার কারণ হলো ওদের সরকার ওদেরকে খেলার অনুমতি দিচ্ছে না। ” পাকিস্তানের প্রাক্তন ক্রিকেটার আগে তাঁর বয়ানে জানান যে,” খেলার কি কোন রাজনৈতিক হওয়া উচিৎ? এটা একদমই নয়, এটা নির্ভর করে পুরোটাই খেলার পরিস্থিতির উপর। আমি ভারতের উপর হওয়া প্রাণসম্পদ নাশের কড়া নিন্দা করছি, কিন্তু যখন আমাদের দেশের কথা আসে তখন আমরা এক রাষ্ট্র। আমরা অবশ্যই নিজেদের প্রধানমন্ত্রীর পাশে দাঁড়াবো। ভারতের আইসিসি বিশ্বকাপ পাকিস্তানের সঙ্গে না খেলার অধিকার রয়েছে। ওরা চাইলে আমাদের সাথে নাও খেলতে পারে। এই পুরো ব্যাপারটা স্বাধীন। ওদের দেশের উপর হামলা করা হয়েছিল, তাই আপনি এই বিষয়ে তর্ক করতে পারেন না।