পাকিস্থান চেয়েছিল ভারতকে অপদস্ত করতে , কিন্তু উল্টে পাকিস্থান নিজেই হেনস্থার শিকার হলো !

দ্বিপাক্ষিক সিরিজ এর আয়োজন নিয়ে 2015 সালে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে পিসিবি’র যে মউ স্বাক্ষরিত হয়েছিল তা অমান্য করার জন্য বিসিসিআই এর কাছ থেকে ক্ষতিপূরণ দাবি করে আইসিসিতে দ্বারস্থ হয়েছিল পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। আর এই মামলারই শুনানিতে আইসিসির ডিসপুটি রিসলিউসন প্যানেল ভারতীয় বোর্ডের পক্ষে রায় দেন।আর এর পরেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের সিদ্ধান্ত বিসিসিআই পক্ষে যাওয়ায়,বিসিসিআই সুনানির সমস্ত খরচ আদায় করার জন্য আবার পাল্টা পাকিস্তানি ক্রিকেট বোর্ডের উপর মামলা করে আইসিসিতে।

আর এই রায় ও বিসিসিআইয়ের পক্ষে যায়। ফলে পাকিস্তান বোর্ডকে সমস্ত ক্ষতিপূরণ দিতে হবে ভারতীয় বোর্ডকে। শুধু পাকিস্তান হেরে গেছে তাই নয়, আইসিসি যে তিন সদস্যের কমিটি গঠন করে শুনানির ব্যবস্থা করেছিল তাদেরও সমস্ত ব্যয়ভার বহন করতে হবে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড কে। তবে শুধুমাত্র আইসিসির সদর দপ্তরে আয়োজিত সুনানির বাকি খরচ গুলি ভারতীয় বোর্ড নিজেরাই যোগাবে। তবে আইসিসির পক্ষ থেকে নির্দিষ্ট কোন অংকের ঘোষণা করা হয়নি। কিন্তু আইসিসি সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে পাক বোর্ডকে সরাসরি ক্ষতিপূরণের আর্থিক পরিমান জানিয়ে দেওয়া হবে।

ঠিক করা হয়েছে যে ভারতীয় বোর্ডের দাবি করা অর্থের মধ্যে 60% পাকিস্তানি বোর্ডকে দিতে হবে। আর বাকি 40% বিসিসিআই নিজে মিটিয়ে নেবে। কিন্তু বিসিসিআই দাবি করেছে যে সমস্ত খরচ এই পাকিস্তানকে বহন করতে হবে। এই দ্বিপাক্ষিক সিরিজ আয়োজনে চুক্তি অমান্য করার জন্য পিসিবি ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের কাছ থেকে প্রায় 447 কোটি টাকার মতো ক্ষতি পূরণ চেয়েছিলেন। আর এইসব মামলায় পাকিস্তান হেরে গিয়ে তা পাওয়া তো দূরের কথা উল্টো বিপুল অঙ্কের ক্ষতিপূরণ গুনতে হবে পাকিস্তানি ক্রিকেট বোর্ডকে।

Related Articles

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Close