দেশনতুন খবরবিশেষ

পাকিস্তানের জাতীয় নীতি হলো সন্ত্রাসবাদ, এই নিয়ে রাষ্ট্রসংঘে আয়না দেখালো ভারত।

পাকিস্তানের বালাকোটে ভারতীয় বায়ুসেনা দ্বারা করা এয়ার স্ট্রাইকের পর থেকে একাধিক প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে।যেখানে বিরোধী দলের সদস্য থেকে শুরু করে নেতা-মন্ত্রীরা পর্যন্ত বিভিন্ন প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছে ভারতীয় বায়ুসেনার উপর।তারা জানতে চেয়েছে ভারতের করা এয়ার স্ট্রাইকের ফলে কত পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে পাকিস্তানের। আর এই এয়ার স্ট্রাইকের দরুন কত জন জঙ্গিই বা মারা গেছে। অন্যদিকে এই বিষয় নিয়ে ভারত সরকার পাকিস্তানকে আন্তর্জাতিক মহলে বেশ চাপে ফেলেছে। এবার পাকিস্তানের সন্ত্রাসবাদ কে রাষ্ট্রসঙ্ঘের আয়না দেখালো ভারত। রাষ্ট্র সংঘের মানবাধিকার পরিষদে নয়াদিল্লি জানালো সন্ত্রাসবাদীদের হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করতে চাইছে পাকিস্তান।

যার তীব্র নিন্দা করা উচিত আন্তর্জাতিক মহলে।এদিন রাষ্ট্রসঙ্ঘের ভারতের প্রতিনিধির রাজীব চন্দ্র বলেন মানবিধিকার লঙ্গনের মৌলিক কারণ হচ্ছে এই সন্ত্রাসবাদ। এছাড়াও তিনি বলেন এই সমস্যা যত এড়িয়ে যাব পরিস্থিতি ততোই সঙ্গীন হয়ে উঠবে ভবিষ্যতে।তবে এখানেই শেষ নয় তিনি আরো বলেন সন্ত্রাসকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করা পাকিস্তানের একটা জাতীয় নীতি হয়ে উঠেছে। শুধু এই নয় আন্তর্জাতিক মহলেও এ ব্যাপারে অবিলম্বে নজর দেওয়া উচিত। তিনি বলেন এ ব্যাপারে আমাদের সবাইকে এক মতে পৌঁছাতে হবে তবে এ সন্ত্রাসবাদকে দমন করা সম্ভব হবে। এদিন তিনি জম্বু কাশ্মীর নিয়ে ও ভারতের অবস্থান স্পষ্ট করে দিয়েছেন। এদিন তিনি বলেন জম্বু কাশ্মীর ভারতের একটি অবিচ্ছেদ্য অংশ। পাকিস্তান জোর করে একটা অংশ কব্জা করে রেখেছে।

Related Articles

Back to top button