একসাথে পাকিস্তানের 100 টির বেশি সাইট হ্যাক করে রেকর্ড করলো ভারতীয় হ্যাকাররা! সাথে লিখে দিলো হিন্দুস্তান জিন্দাবাদ….

বৃহস্পতিবার দিন কাশ্মীরের পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলা পর থেকেই ক্ষোভে ফুঁসছে সকল ভারতবাসী কেউ চাইছে এর বদলা আবার কেউ চায়ছে যুদ্ধ।তাছাড়া বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়াতে ভারতীয় সেনা জওয়ান এর ভিডিও ভাইরাল হচ্ছে যেখানে সেনা জওয়ানদের বলতে দেখা যাচ্ছে আমাদের বন্ধু,আমাদের ভাইয়ের রক্ত ব্যর্থ হতে দেব না,অধিকাংশ ভিডিওতে তাদের কে বলতে দেখা যাচ্ছে দরকার পড়লে আমিও মরবো কিন্তু পাকিস্তানের শেষ পরিণতি ডেকেই আনবো। আবার অনেক সেনা জওয়ানদের এটাও বলতে শোনা যাচ্ছে আমাদেরকে ভারত সরকার 60 মিনিট সময় দিক আমরা 59 মিনিটে গোটা পাকিস্তান উড়িয়ে দিয়ে চলে আসবো।

এরকম চারদিক থেকে নানান ভিডিও আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘোরাঘুরি করছে অন্যদিকে নিজেদের সাথীদের হারিয়ে ক্ষোভে ফুঁসছে সিআরপিএফ অফিসার। তারা শুক্রবার দিন টুইট করে জানিয়ে দিয়েছেন আমরা ভুলব না, না ক্ষমা করবো এর জন্য যারা দায়ী আমরা এই জঙ্গী হামলার বদলা নিয়েই ছাড়বো। সকল দেশবাসী চায় যে চরম শিক্ষা দেওয়া হোক পাকিস্তানকে, যা তারা সারা জীবন ভুলতে না পারে। অনেক শডহীদ জওয়ানের পরিবার চাইছে আরো একবার সার্জিক্যাল স্ট্রাইক করা হোক পাকিস্তানের বিরুদ্ধে। আবার অনেকেই দেখা গেল চোখের জলে নিজের ছেলেকে বিদায় দিচ্ছে তবে দেশের প্রতি ভালোবাসা তাদের এখনো কমেনি।এরই মধ্যে শহীদ রতন ঠাকুরের বাবা জানিয়েছেন দরকার পড়লে আমার ছোট ছেলেকে আমি সেনাতে পাঠাবো এটাই আমার দেশের প্রতি আমার ভালোবাসা।এমন অনেকেই আছে যারা বন্ধুক হাতে নিয়ে লড়াই করতে পারে না কিন্তু ঘরে বসে বন্দুক হাতে না নিয়ে মাউস কীবোর্ডের ব্যবহার করে গোটা পাকিস্তানকে নাজেহাল করে দিতে পারে ভারতীয় হ্যাকাররা।

আর তারই প্রমাণ দিল আজ এই ভারতীয় হ্যাকাররা একের পর এক পাকিস্তান ওয়েবসাইট হ্যাক করা শুরু করে দিয়েছে যেখানে হিন্দুস্তান জিন্দাবাদ স্লোগান লিখে দিয়ে আসা হচ্ছে। তবে জানি এভাবে পাকিস্তান কে উচিত শিক্ষা দেওয়া যাবে না তবে যারা বন্ধুক হাতে নিতে পারে না তারা তাদের বুদ্ধির জোরে পাকিস্তান কে উচিত শিক্ষা দেওয়ার পরিকল্পনা করে নিয়েছে ‌। এখনো পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুযায়ী জানতে পারা গেছে পাকিস্তানের বহু ওয়েবসাইট হ্যাক করা হয়েছে যার মধ্যে পাকিস্তানের বিদেশ মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইট ও রয়েছে। যার দরুন চরম নাজেহাল হচ্ছে পাকিস্তান সরকার ও অধিকারিকরা। আর এই ঘটনাকে ঘিরে পাকিস্তানের বড়োসড়ো খবর ছাপা হচ্ছে।

আর আমরাও মনে সান্ত্বনা দিয়ে এটুকু তো বলতে পারছি যে ঘরে বসেই তো পাকিস্তানকে শিক্ষা দেওয়া হয়ে যাচ্ছে এখনো পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুযায়ী সকাল থেকে এখনো পর্যন্ত 100 টিরও বেশি পাকিস্তান ওয়েবসাইট হ্যাক করে নিয়েছে ভারতীয় হ্যাকাররা। এবং সেখানে ছড়িয়ে দিয়েছে ভারতীয় শ্লোগান ও ভারতীয় জাতীয় পতাকা।তবে মোদি সরকার এবং কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির পক্ষ থেকে যে মন্তব্য বেরিয়ে আসছে যার দরুন জানতে পারা যাচ্ছে এবারে যে বদলা নেবার প্রক্রিয়াটি হবে সেটা পাকিস্তান চিরজীবন ভুলতে পারবে না, এমনকি ঘটনাটিকে ইতিহাসের পাতায় লেখা হবে।