এবার চীনে ভয়াবহভাবে অপমানিত হলেন পাকিস্তান প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। মান সম্মান হারালো পাকিস্তান।

আমরা হয়তো দেখেছি নরেন্দ্র মোদি যবে থেকে প্রধানমন্ত্রীর আসনে বসেন তবে থেকে পাকিস্তানের সম্মান ধুলোয় মিশে গেছে। তাছাড়া পাকিস্তান নিজেরাই নিজেদেরকে অপমান করে। সম্প্রতি পাকিস্তান থেকে একটা সব থেকে বড় খবর শোনা যাচ্ছে যার ফলে পাকিস্তানের যেটুকু সম্মান ছিল সেটুকু খোয়াতে বসেছে। খবরটি হলো পাকিস্তানের ইসলামাবাদ থেকে যেখানে পাকিস্তানের সরকারী চ্যানেল বেজিং(Beijing) বানানটি ভুল করে বেগিং(Begging) লিখে দিয়েছে। এই ভুলের পথ পাকিস্তানের কে নিয়ে সমালোচনা শুরু হয়ে গিয়েছে।

আসলে বেগিং শব্দটির অর্থ হল ভিক্ষা করা।পাকিস্তানের কিছু অর্জন ওই মুহূর্তে টিভির ছবি তুলে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছেড়ে দেন ব্যাস তারপরই ছবিটি মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে যায়।এবং তার সাথে ইমরান ইমরান খান কে নিয়ে কটাক্ষ শুরু হয়ে যায়। এই ঘটনাটি ঘটার পর সঙ্গে সঙ্গে পাকিস্তান সরকার চ্যানেলটি নিয়ে তদন্ত শুরু করে দিয়েছে। কারণ এটি এক দেশের সম্মানের ব্যাপার। টিভি চ্যানেল পাকিস্তান সরকার কাছে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছেন এই ভুলের জন্য। এবং তারা বলেছেন একই টাইপিং মিসটেক।

তবে যাই হোক ইচ্ছে করে হোক বা ভুলবশত হোক এই ঘটনার পর থেকে পাকিস্তান যে চীনের কাছে আর্থিক সাহায্য চেয়েছিলেন তা কটাক্ষ করে বলছেন পাকিস্তান চীনের কাছে অর্থ ভিক্ষা চেয়েছিল। যদিও পাকিস্তান এই ঘটনাটিকে পুরোপুরি দাবিয়ে রাখার চেষ্টা করেছিল। কিন্তু বর্তমান যুগের সোশ্যাল মিডিয়ায় এতটাই শক্তিশালী পাকিস্তান সরকার সেটা করতে পারেনি। শুধু তাই নয় পাকিস্তান সব জায়গা থেকে চাপ দিয়ে সেই ভাইরাল হওয়া ছবিটি কে সরিয়ে দিয়েছে। কিন্তু যতক্ষণে পাকিস্তান সরকার এই কাজটি করেছে তার আগে এই ছবিগুলি ভারতীয়দের কাছে পৌঁছে গিয়েছে। ভারতীয়রা এ নিয়ে নানান ট্রল করতে থাকে। টিভিতে বেগিং শব্দটি 20 সেকেন্ড পর্যন্ত ছিল।পোস্টটি ভালো লাগলে অবশ্যই আপনার মতামত জানান কমেন্ট বক্সে।