অবশেষে হার মানলো পাক সরকার! মেনে নিলো ভারতের কূটনৈতিক ক্ষমতার জোরে আজ সারা বিশ্বে একাই হয়ে গেছে পাকিস্তান

ভারত সরকার জম্মু কাশ্মীর থেকে ধারা 370 তুলে নেওয়ার পর থেকে পাকিস্তানকে লক্ষ্য করা যাচ্ছিল একের পর এক দেশের সামনে গিয়ে হাতজোড় করে বলতে সেই দেশ যেনো তাদের সমর্থনে এগিয়ে আসে। কিন্তু কোন দেশে তাদের সমর্থনে এগিয়ে আসেনি। এমনকি তাদের পরম বন্ধু চীন ও অবশেষে এই বিষয়ে নাক গলাতে অস্বীকার করে দেয়। গোটা বিশ্বের সামনে বেইজ্জত হওয়ার পর এবার ইমরান খানের বিরুদ্ধে তার নিজের দেশের মানুষেরাই বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে দিয়েছে।

পাকিস্তানের প্রধান বিরোধী দল পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি) এবার ইমরান সরকারের ওপর আক্রমণ করে বলছে পাক সরকারের ভুল নীতির কারণে এবং ভারত সরকারের কূটনৈতিক সফলতার কারণেই আজ পাকিস্তান গোটা বিশ্বে একঘরে হয়ে গেছে। পাকিস্তান মিডিয়ার খবর অনুযায়ী পিপিপি ইমরান খানের সরকার (তেহরিক ই ইনসাফ) এক বছর পূরণ হয় এক বছরের চিঠি জারি করেছে গোটা পাকিস্তানবাসীর জন্য।

ইমরান খানের সরকার এই এক বছর পূর্ণ হওয়ায় এই সরকারকে পরিবর্তনের সরকার বলেছে, তবে অন্যদিকে পিপিপি এই সরকারকে বরবাদীর সরকার বলে আখ্যা দিয়েছে। পিপিপি জারি করা এই পত্রে বলেছে পাকিস্তান বিগত কয়েক বছরে আন্তর্জাতিক মহলে এতটাই পেছনে পড়ে গেছে যে এখন ইমরান খানের সরকার কে সেনা আর অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের সমর্থন গড়ে তোলা সরকার বলা হয়ে থাকে। পাক সরকার যেভাবে সমস্ত প্রতিশ্রুতি থেকে নিজেদের মুখ ঘুরিয়ে নিয়েছে সেই হিসাবে খারাব নীতির সমস্ত রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে। তবে শুধু তাই নয় পিপিপি আরো অভিযোগ করে বলে পাক সরকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল যে তারা ঋণ এর জন্য আইএমএফ এর কাছে যাবে না কিন্তু সেই প্রতিশ্রুতি না মেনে অবশেষে সেখানেই গিয়েছে ইমরান খানের সরকার। ইমরান খান আইএমএফের কাছে নিয়েছে ঋণ।


শুধু তাই নয় ইমরান খানের সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে আন্তর্জাতিক কূটনৈতিক মহলে পাকিস্তান আজ সারা বিশ্বে একঘরে হয়ে গেছে, সাথে পাকিস্তানের ঋণের বোঝা বেড়েছে বহুগুণ। ইমরান খানের সরকার থাকায় এক বছরে পাকিস্তানের আর্থিক অবস্থা পুরোপুরি সংকটে চলে এসেছে।

Related Articles

Close