দেশনতুন খবরবিশেষভারতীয় সেনা

ভারতের কাছে মার খেয়েছি টুইট করে জানিয়ে দিলেন পাক সেনার মেজর জেনারেল। ভারতের সার্জিক্যাল স্ট্রাইক এর জেরে ধ্বংস জইশের একাধিক কন্ট্রোল রুম।

ভারতের কাশ্মীরে পুলওয়ামায় জঙ্গি হানার পর গোটা দেশজুড়ে বদলার একটা প্রতিক্রিয়া লক্ষ্য করা গিয়েছিল, আর সেটাই সফল করে দেখালো ভারতীয় বায়ুসেনা এবার। নিয়ন্ত্রণ রেখা কে অতিক্রম করে পাকিস্তানের বায়ু সীমানায় প্রবেশ করেছিল ভারতীয় বিমান। পাক অধিকৃত কাশ্মীরে এবার সার্জিক্যাল স্ট্রাইক করল ভারত সরকার। তবে এবার এই অভিযানে নেতৃত্ব দেওয়া হয়েছিল ভারতীয় বায়ুসেনা কে। আজ ভোর রাত সাড়ে তিনটে নাগাদ বায়ুসেনার তরফ থেকে হামলা চালানো হয় পাক জঙ্গি ঘাঁটি গুলিতে। 12 টি মিরাজ 2000 ফাইটার কে ব্যবহার করা হয় এই হামলা করার জন্য। প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী জানতে পারা যায় জঙ্গি ঘাঁটিগুলোর ধ্বংস করার জন্য 1000 কিলোগ্রাম বিস্ফোরক ব্যবহার করেছিল ভারতীয় বায়ুসেনা।

আর এই সার্জিক্যাল স্ট্রাইকে জেরে ধ্বংস হয়ে গেছে জইশের কন্ট্রোল রুম। খাইবার পাখতুনওয়ার বালাকোট এই সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের জেরেই এই জইশ-ই-মহম্মদ এর কন্ট্রোল রুম ধ্বংস হয়েছে। এছাড়াও বালাকোট , চাকর টি, মুজাফফরাবাদ জঙ্গি ঘাঁটিতে হামলা চালানো হয় তাতেই সেখানে অবস্থিত জইশ এর কন্ট্রোল রুম নিশ্চিহ্ন হয়ে গেছে। এখনো পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুযায়ী জানতে পারা গেছে পাকিস্তানি সেনার মুখোপাত্র মেজর জেনারেল অফিস গাফুর স্বীকার করে নিয়েছেন এই হামলার।তার করা টুইট থেকে এটা স্পষ্ট জানা যায় যে ভারতীয় বায়ুসেনা নিয়ন্ত্রণ রেখা কে অতিক্রম করে পাকিস্তানের প্রকাশ করে তাদের পাকিস্তানে অবস্থিত জঙ্গিদের ডেরা গুলিকে ধ্বংস করে দিয়েছে। তবে গতবারের পাকিস্তানের উপর করা ভারতীয় সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের সময় পাকিস্তান কোন কথা বলেনি তবে এবারের সার্জিক্যাল স্ট্রাইক এর জেরে মুখ খুললো পাকিস্তান।

আপনাদের বলে রাখি মাত্র কুড়ি মিনিটের মধ্যে অপারেশন শেষ করে ভারত ফেরে ভারতীয় বিমান গুলি এই হামলায় জইশ-ই- মহম্মদের ঘাঁটি সহ বহু জঙ্গি শিবির গুড়িয়ে দিয়েছে ভারতীয় বায়ুসেনা।সূত্রের খবর, ভারতীয় বিমানহামলার পর জরুরি বৈঠক ডেকেছেন পাক বিদেশমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশি। পাক বিদেশমন্ত্র কের কার্যালয়ে বসেছে এই বৈঠক। বৈঠকে অংশগ্রহণ করেছেন পাকিস্তানের প্রাক্তন বিদেশসচিব ও বরিষ্ঠ কূটনীতিকরা।

Related Articles

Back to top button