মাত্র ৫০০০ টাকা জমালেই আপনিও হয়ে যাবেন ১.২৮ কোটি টাকার মালিক। ভারত সরকারের নতুন স্কিমের দরুন।

কথায় আছে বিন্দু বিন্দু জল দিয়ে সাগর তৈরি হয়। যা দিনকাল পড়েছে তাতে আজকালকার ছেলেমেয়েরা তাদের মা-বাবাকে দেখা তো দূরের কথা বাড়ি থেকে বার করে দেয়। আজ আপনাদের সরকারের একটা প্রকল্প বা স্কিমের কথা বলবো যেটা নিয়ে যদি আপনার একটু জেনে ফেলতে পারেন তাহলে আপনার ভবিষ্যৎ নিরাপদ হয়ে উঠবে এবং আপনাকে কারো উপর নির্ভরশীল হতে হবে না। আজকে যে বিষয়ে কথা বলব সেটি হলো, আপনারা যদি প্রতি মাসে ৫,০০০ টাকা করে জমা খরেন তাহলে আপনি পেতে পারেন ১.২৮ কোটি টাকা। কেন্দ্র সরকারের পক্ষ থেকে উঠে এলো এই প্রকল্প।

আপনারা তো জানেন কেন্দ্র সরকারের কর্মচারীরা ন্যাশনাল পেনশন যোজনা দ্বারা টাকা জমিয়ে থাকেন, কিন্তু এবার থেকে সাধারণ মানুষ এই প্রকল্পের দ্বারা টাকা জমাতে পারবেন। আমরা সকলেই সরকারি চাকরি পছন্দ করি কারন, সরকার চাকরি একবার পেলে চাকরি শেষ হওয়ার পরবর্তী জীবন সুখময় হয় , কিন্তু যারা বেসরকারি চাকরি করেন তাদের জন্যই একমাত্র কেন্দ্রীয় সরকার নিয়ে এসছে ন্যাশনাল পেনশন স্কিম এবার থেকে বেসরকারি কর্মচারীরাও নিজের সেভিংস অ্যাকাউন্টে একটু একটু টাকা জমিয়ে হতে পারবে কোটিপতি। শুধু তাই নয়, এই প্রকল্পের দরুন আপনি করের ছাড় তো পাবেনই, তার সাথে সাথে পেয়ে যাবেন অনেক সুদের হার।তবে আপনি এ প্রকল্পের আওতায় এলে আপনাকে ধৈর্যকারি হতে হবে । আপনার বয়স ন্যূনতম ১৮ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে হতে হবে তাহলে আপনি এই ন্যাশনাল পেনশন স্কিম যোজনার লাভ উঠাতে পারবেন।

কেন্দ্রীয় সরকার জানিয়েছে, আপনার টাকা যখন আপনি পুরো পেয়ে যাবেন তখন সরকারের পক্ষ থেকে মিলবে ৪০% করের ছাড়। আপনারা অন্যান্য ব্যাংকে টাকা রাখলে তাতে প্রচুর পরিমাণে সরকারকে কর দিতে হয় । আর কেন্দ্রীয় সরকারের ন্যাশনাল পেনশন স্কিম এর আওতায় এলে আপনি ৬০% পর্যন্ত কর মুক্ত হবেন।আপনাদের ন্যাশনাল পেনশন স্কিম এর একটি ছোট্ট উদাহরণ দিয়ে বুঝিয়ে দিই , আপনার বয়স যদি ২৫ বছর হয়ে থাকে এবং আপনি ৬০ বছর পর্যন্ত প্রতি মাসে ৫,০০০ টাকা করে এনপিএস ( ন্যাশনাল পেনশন স্কিম) প্রকল্পে দিয়ে যান, তাহলে ৩৫ বছরের পর আপনি ২১ লক্ষ টাকা জমাবেন কিন্তু কেন্দ্রীয় সরকার আপনাকে সুদ সমেত সর্বমোট ১.২৮ কোটি টাকা দেবে ।

শুধু তাই নয় , আপনার বয়স যদি ২৫ এর বেশিও হয় তাও আপনি এ প্রকল্পের আওতায় আসতে পারবেন কিন্তু আপনার সর্বমোট টাকার পরিমাণ হয়তো কম হবে এবং আপনি যত বছরের জন্য টাকা জমাবেন তার উপরে আপনার ৬০ বছরে প্রাপ্ত টাকার মান নির্ধারিত হবে।

Related Articles

One Comment

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Open

Close