RTO তে গিয়ে সময় নষ্টের দিন শেষ, এবার থেকে আধার কার্ডেই ড্রাইভিং লাইসেন্স

আপনার কী গাড়ি আছে? বা আপনি কী পেশাগত দিক থেকে একজন গাড়ি চালক? তাহলে কেন্দ্রীয় সরকার আপনার জন্য একটি সুখবর নিয়ে হাজির হয়েছে। এখন থেকে ড্রাইভিং লাইসেন্স রিনিউ, লার্নার লাইসেন্স নেওয়া, ডুপ্লিকেট লাইসেন্স নেওয়া সহ মোট ১৮ টি কাজ আধার বেস অথেনটিকেশন পদ্ধতিতেই করা যাবে বলে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। অর্থাৎ যাদের ড্রাইভিং লাইসেন্স আছে তাদের এগুলি রিনিউ করার জন্য আর আরটিও (RTO) অফিস যাওয়ার কোনো প্রয়োজন নেই।

 

ভারত সরকার প্রথমে তার গ্রাহকদের একটি নোটিফিকেশনের মাধ্যমে বলে যে গ্রাহকরা যেন তাদের ড্রাইভিং লাইসেন্স ও আরসির সঙ্গে ১২ ডিজিট নম্বর লিংক করিয়ে নেয়। তারপরে একটা বিজ্ঞপ্তি দিয়ে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রক প্রকাশ করেছে ড্রাইভিং লাইসেন্স রিনিউ, লার্নার লাইসেন্স নেওয়া, ডুপ্লিকেট লাইসেন্স নেওয়া ইত্যাদি কাজগুলির জন্য গ্রাহকদের আর কষ্ট করে আরটিও অফিসে যাওয়ার প্রয়োজন নেই।

এবার থেকে এই সমস্ত কাজ গুলি গ্রাহকরা অনলাইনের মাধ্যমে করতে পারবে। বর্তমান যুগে সমস্ত কাজই অনলাইনে করা যাচ্ছে। যেমন ভোটার কার্ড, আধার কার্ড সবকিছুই এখন আবেদন করা যাচ্ছে অনলাইনের মাধ্যমে। তাই ড্রাইভিং লাইসেন্স রিনিউ, লার্নার লাইসেন্স নেওয়া, ডুপ্লিকেট লাইসেন্স নেওয়া এই সমস্ত বিষয়গুলি গ্রাহকরা অনায়াসে বাড়িতে বসে অনলাইনে এবার থেকে করতে পারবে।

এত দিন পর্যন্ত লার্নার লাইসেন্স, ড্রাইভিং লাইসেন্স রিনিউ, ডুপ্লিকেট লাইসেন্স, ড্রাইভিং লাইসেন্সে ঠিকানার পরিবর্তন, সাময়িক রেজিস্ট্রেশন, গাড়ির মালিকানা পরিবর্তনের জন্য গ্রাহকদের জমায়েত হতে হতো আরটিও অফিসে। কিন্তু ভারত সরকারের নির্দেশ অনুযায়ী এই সমস্ত বিষয় অনলাইনে করা গেলে সাধারণ মানুষের ওপর চাপানো ভার কিছুটা লাঘব হবে বলে মনে করা হচ্ছে। এছাড়াও আরটিও অফিসের ভিড় কিছুটা কম হবে। সুখ স্বাচ্ছন্দ্যের মধ্যে কাজ করতে পারবেন আরটিও অফিসের অফিসারগণ।