বাঙালি বিজ্ঞানীর এক যুগান্তকারী আবিষ্কার,যার ফলে মাটিতে নষ্ট হচ্ছে প্লাস্টিক।এই আবিষ্কার গোটা বিশ্বের কাছে দৃষ্টান্তের বিষয়।

উত্তর 24 পরগনা খড়দহের এক বাঙালি বিজ্ঞানীর দ্বারা ব্যাকটেরিয়া ও ছত্রাক এর মাধ্যমে প্লাস্টিক জাতীয় দ্রব্য বিলীন হতে চলেছে। উত্তর 24 পরগনার এই বিজ্ঞানী প্লাস্টিক জাত দ্রব্যকে ধ্বংস করার ফর্মুলা এবং আরো 15 রকমের ব্যাকটেরিয়া ও ছত্রাক আবিষ্কার করলেন। এই বাঙালি বিজ্ঞানীর নাম হল ড: স্বপন কুমার ঘোষ।ইনি হলেন উত্তর 24 পরগনা খড়দার রহরা রামকৃষ্ণ মিশন শতবার্ষিকী কলেজের অধ্যাপক এবং তার সাথে ক্যান্সার গবেষক। তিনি ক্যান্সারের প্রতিষেধক আবিষ্কার করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন একাধারে। এই কলেজেরই ল্যাবরেটরীতে তিনি প্লাস্টিক এত দ্রব্য ধ্বংস করার ব্যাক্টেরিয়া এবং ছত্রাক আবিষ্কার করেন।

স্বপন বাবু বলেন,50 মাইক্রনের কম প্লাস্টিক যাত যেসব দ্রব্য মাটিতে মেশে না ফলে পরিবেশকে দূষিত করে। সেই সব প্লাস্টিকের দ্রব্যকে তার আবিস্কৃত ছত্রাক ও ব্যাকটেরিয়া দিয়ে মাত্র 150 দিনের মধ্যেই মাটিতে মিশিয়ে দেবে। এই বাঙালি বিজ্ঞানী স্বপন বাবু 2012 সাল থেকে ব্যাকটেরিয়া ছত্রাক নিয়ে গবেষণা করে আসছেন। আর তিনি এতো দিনে সফল হয়েছেন। আর তার আবিষ্কার সফল হতে না হতেই ফরাসি ব্যবসায়িক এক সংস্থা সেই আবিষ্কার কিনে নিতে চেয়েছিলেন তার কাছ থেকে। কিন্তু তিনি এতে রাজি হননি। তার দাবি যে তিনি বাংলার জন্য কাজ করতে চান। তিনি আরো বলেন যে,আমার আবিষ্কার হলো পরিবেশ বান্ধব।

আমাদের দৈনন্দিন জীবনে বিভিন্ন প্লাস্টিক যত পদার্থ ব্যবহার করি যেমন জলের বোতল থেকে শুরু করে স্যালাইনের বোতল এই সব কিছুই ধ্বংস করবে আমার তৈরী এই ব্যাকটেরিয়া এবং ছত্রাক গুলি। তাও আর মাত্র 150 দিনের মধ্যে। তিনি আরো বলেন যে, আমারে আবিষ্কৃত ব্যাকটেরিয়ার থাকলে আমার রাজ্যে পৌরসভা ব্যবহার করলে সুফল পাবেন। যার ফলে আমাদের সমাজের ই লাভ হবে।আমেরিকা থেকে পাস করা স্বপন বাবু সব সময় চেয়েছিলেন যে বাংলার জন্য কিছু করে দেখাতে। আর আজ তিনি সফল। স্বপন বাবুর যুগান্তরকারী প্লাস্টিক জাত দ্রব্য বিলীন হওয়ার আবিষ্কার গোটা বিশ্বের কাছে দৃষ্টান্তের বিষয়।
পোস্টটি ভালো লাগলে আপনার প্রিয়জনদের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না আরো এরকম নতুন নতুন পোস্ট পেতে আমাদের পেইজটি লাইক করুন।