দেশনতুন খবরবিশেষলাইফ স্টাইল

আবারও এক ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত নিতে চলেছেন মোদি সরকার, আগামী পহেলা জুন থেকে শুরু হতে চলেছে এক দেশ, এক রেশন কার্ড প্রকল্পের..

একথা আমরা কয়েক মাস আগের থেকে শুনতে পাচ্ছিলাম যে মোদি সরকার আবারো দেশের জনগণের স্বার্থে এক ঐতিহাসিক পদক্ষেপ নিতে চলেছেন। তবে কবে থেকে লাগু করা হবে এই নতুন নিয়ম তা নিয়ে ছিল একাধিক সংশয়। তবে এই বিষয়ে আর কোনো সংশয় থাকলা না,কারণ এবার কেন্দ্রীয় খাদ্যমন্ত্রী রামবিলাস পাসওয়ান এই বিষয়ে সমস্ত কিছু জনসাধারণের কাছে স্পষ্ট করে দিলেন।

এইদিন কেন্দ্রীয় খাদ্যমন্ত্রী রাম বিলাস পাশওয়ান মিডিয়াকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে জানান আগামী 1 ই জুন থেকে শুরু করা হতে চলেছে দেশজুড়ে “এক দেশ, এক রেশন কার্ডের“। তিনি জানান সাধারণ মানুষের যে খাদ্যের অধিকার দেওয়া হচ্ছে সরকারের তরফ থেকে তাঁকে সুনিশ্চিত করার কথা মাথায় রেখেই নেওয়া হচ্ছে এই নতুন পদক্ষেপ। আর এবার যে প্রকল্পটি শুরু করা হতে চলেছে সেই প্রকল্পের আওতায় পড়বে গোটা দেশ এ কথাও স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন তিনি।

একথা আমরা অনেকদিন আগে থেকে শুনতে পাচ্ছিলাম যে বিভিন্ন জায়গায় অভিযোগ উঠেছিল রেশন পণ্য দেওয়া নিয়ে। দেশের অনেক মানুষই এ বিষয়ে অভিযোগ দায়  করতে দেখা যায় তাদের দাবি তারা তাদের উপযুক্ত রেশন পণ্য পাচ্ছে না  রেশন সেন্টার থেকে।আবার অনেকে তে এটাও অভিযোগ করছিল যে তাদের উপযুক্ত রেশন পণ্যকে অধিক দামে বেচা হচ্ছে তাদের কে। তবে বলে রাখি এই যে এই এক দেশ এক রেশন কার্ড  (One Nation One Ration Card) নামক যোজনাটি কেন্দ্র সরকার শুরু করতে চলেছেন তার দরুন দেশের সকল মানুষই একই দামে পাবেন তাদের উপযুক্ত রেশন পণ্য।

অন্যদিকে এখনো পর্যন্ত বিভিন্ন রাজ্যের রেশন কার্ড বিভিন্ন। তাই যারা কাজের জন্য এক রাজ্য থেকে অন্য রাজ্যে যায় তাদের আবার নতুন করে রেশন কার্ড বানাতে হয় এবং নতুন রেশন কার্ড বানানোর জন্য তাদের কে অনেক ঘোরাঘুরি ও করতে হয়, যা এবার থেকে আর করতে হবে না তাদের। এছাড়াও বিভিন্ন রাজ্যে রেশন এর দাম বিভিন্ন হয়ে থাকে। তবে এবার থেকে এই প্রকল্প চালু হলে সেইসব মানুষদের আলাদা করে আর রেশন কার্ড বানাতে হবে না এই এক দেশ এক রেশন কার্ডের মাধ্যমে তারা তাদের উপযুক্ত রেশন পণ্য দেশের বিভিন্ন প্রান্তে থেকেও সংগ্রহ করে নিতে পারবে এক্ষেত্রে তাদের কোনো অসুবিধা সম্মুখীন হতে হবে না।

আর একবার এই প্রকল্প চালু হলে কোন উপভোক্তা দেশের যে কোন প্রান্তের রেশন দোকান থেকে সরকার নির্ধারিত ভর্তুকিযুক্ত মূল্যে খাদ্যশস্য কিনতে পারবেন। কারণ তখন দেশের সমস্ত রেশন কার্ডের তথ্য একটি সার্ভারে জমা করা থাকবে। তবে এর পাশাপাশি এই প্রকল্প একবার শুরু হয়ে গেলে ভুয়ো রেশন তোলার যে অভিযোগ উঠছে বার বার তা সম্পূর্ণভাবে বন্ধ হয়ে যাবে।আর তেমনি কেউ যদি ভিন্ন রাজ্যে গিয়ে বসবাস করেন তাহলে তার পক্ষেও অতি সহজ হয়ে যাবে রেশন তোলা। গোটা দেশজুড়ে এক রেশন কার্ড দিয়ে রেশন তুলতে পারবেন দেশের সমস্ত নাগরিক।

Related Articles

Back to top button