দোলের দিনে পাকিস্তানের হামলায় কাশ্মীরে শহীদ সেনা জওয়ান…

পাকিস্তান সংঘর্ষবিরতি চুক্তি লংঘন করেছে এটা শুনে অবাক হওয়ার কিছু নেই। প্রায় কয়েক দিন অন্তর অন্তর পাকিস্তান সংঘর্ষবিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করে থাকে। এবার ফের সংঘর্ষ বিরোধী চুক্তি লঙ্ঘন করে সীমান্তে হামলা চালায় পাকিস্তান। এ হামলা তে একজন ভারতীয় জওয়ান ও শহীদ ও হন।বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই জম্মু-কাশ্মীরের রাজৌরি জেলার নিয়ন্ত্রণ রেখার ওপার থেকে লাগাতার হামলা চালায় পাকিস্তানি সেনা। উল্টো দিক থেকে ভারতের সুন্দরবেনী সেক্টর থেকে ভারতীয় সেনা তার যোগ্য জবাব দেওয়া শুরু করে। তারপরেই পাকিস্তান কিছুটা থমকে যায়। কিন্তু তাদের হামলাতে ভারতীয় এক সেনা জওয়ান শহীদ হলেন।24 বছরের এই শহীদ জাওয়ান এর নাম হল যশ পাল। গত মাসের 14 ই ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামাতে হওয়া জঙ্গি হামলাতে 40 জন সিআরপিএফ জাওয়ান শহীদ হয়। এ হামলার পর সবাই প্রতিবাদের আগুনে জ্বলতে থাকে। সারা ভারতবাসী চাইছিলেন পাকিস্তানকে এর যোগ্য জবাব দিতে। ফলে পুলওয়ামায় ঘটনা ঘটার পর 26 শে ফেব্রুয়ারি অর্থাৎ 12 দিন পরে আকাশ পথে হামলা চালায় ভারতীয় বায়ুসেনা। পুলওয়ামায় হওয়া জঙ্গি হামলার দায় স্বীকার করেছিলেন পাক মদতপুষ্ট জঙ্গি সংগঠন জইশ-ঈ-মহম্মদ। তাই 26 শে ফেব্রুয়ারি ভোর রাতে বালাকোটের জইশদের সবচেয়ে বড় জঙ্গি ঘাঁটিতে ভারতীয় বায়ুসেনা গুড়িয়ে দেয়। এর পরেই পাকিস্তানের ওপার থেকে গোলাবর্ষণ প্রতিনিয়ত হতেই থাকে। এমনকি পাকিস্তানের তরফ থেকে আকাশপথে হামলা চালানোর অনেকবার চেষ্টা করা হয়। তিনটি এফ-16 ও একাধিক যুদ্ধবিমান নিয়ে ভারতের ওপর হামলা চালানোর চেষ্টা করে পাকিস্তানি সেনা। তাদের প্রত্যেকটি হামলার যোগ্য জবাব দিয়েছে ভারতীয় সেনা। এরপর ভারতীয় বায়ুসেনার উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমান মিগ-21 বিমান নিয়ে পাকিস্তানের বিমান গুলির পেছনে তাড়া করে।

এরপর অভিনন্দন এর বিমান পাকিস্তানের মাটিতে পড়ে যাওয়ায় পাকিস্তানি সেনা অভিনন্দন কে ধরে ফেলে। কিন্তু ভারত এবং আন্তর্জাতিক চাপের মুখে পড়ে অভিনন্দন কে ছাড়তে বাধ্য হয় ইমরান খানের সরকার। কিন্তু ইমরান খান পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী দাবি করেন, শান্তির বার্তা দিতে তার সরকার অভিনন্দন কে ছেড়ে দিচ্ছে। কিন্তু ইমরান খানের যে এই দাবির কোন ভিত্তি নেই তার প্রমান ভারত-পাক সীমান্তে প্রতিদিনেই মিলছে। প্রায় প্রতিদিনই পাকসেনারা সীমান্তের ওপার থেকে হামলা চালাচ্ছে। বৃহস্পতিবার আবার সেই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হলো।