দাম বাড়িয়ে চাপে পড়ল মুকেশ আম্বানির সংস্থা, দিন দিন হু হু করে কমছে গ্ৰাহক সংখ্যা

বেশ কিছু মাস ধরেই বিভিন্ন টেলিকম সংস্থা গুলিতে তাদের রিচার্জ প্ল্যান গুলোর দাম বাড়িয়ে চলেছে, যার ফলে বিভিন্ন কোম্পানির ক্ষেত্রে গ্রাহক সংখ্যা কমে যাচ্ছে। সম্প্রতি প্রকাশ হয়েছে এপ্রিলের মাসিক পারফরম্যান্স ডাটা যেখানে দেখা গেছে চলতি বছরেই জিওর গ্রাহক সংখ্যা ক্রমশই কমে আসছে।

বোঝাই যাচ্ছে যে বিভিন্ন রিচার্জ এর মূল্য বৃদ্ধি পাওয়ার কারনেই গ্রাহক সংখ্যা ক্রমশই কমে যাচ্ছে। বিভিন্ন রিচার্জ প্ল্যান এর দাম বাড়ানোর কারণে এই প্রভাব পড়ছে রিলায়েন্স জিও কোম্পানির ওপরে।

এপ্রিলে জিওর গ্রাহকসংখ্যা এসে দাঁড়িয়েছে ৩৭.৮৯ কোটি থেকে ৩৭.৮৮ কোটি। মুম্বাইয়ের সংস্থাটি এক মাসে হারিয়েছে প্রায় ১ লক্ষ গ্রাহক অন্যদিকে জিও সঙ্গে যুক্ত হয়েছে ১৬ লক্ষ নতুন গ্রাহক।

নতুনভাবে গ্রাহক সংখ্যা বেড়ে গিয়ে থাকলেও সক্রিয়ভাবে গ্রাহক সংখ্যা কমে যাচ্ছে। অন্যদিকে রিচার্জ এর প্ল্যান গুলির দাম বাড়িয়ে দেওয়ার কারণে এয়ারটেল সংস্থাটি ও তার বহু গ্রাহক হারাচ্ছে ।

এয়ারটেলের গ্রাহক সংখ্যা ছিল ৩৫.৫৭ কোটি যেখানে বর্তমানে রয়েছে ৩৫.২৬ কোটি এই একই প্রভাব পড়ছে ভোডাফোন আইডিয়া ওপরও। এপ্রিলে প্রায় ভোডাফোন আইডিয়া হারিয়েছে ৩৭ লক্ষ গ্রাহক। এপ্রিলের শুরুতে বিএসএনএল নেটওয়ার্ক এ ৫.৯৮ কোটি গ্রাহক ছিল যেখানে এপ্রিলের শেষে এসে দাঁড়িয়েছে ৫.৯৩ কোটি। সুতরাং বোঝাই যাচ্ছে যে হু হু করে বিভিন্ন টেলিকম সংস্থাগুলির গ্রাহক সংখ্যা কমে যাচ্ছে।

বিশেষজ্ঞদের মতে যেভাবে বিভিন্ন টেলিকম সংস্থার গ্রাহক সংখ্যা কমছে তাতে মনে করা হচ্ছে যে বেশিরভাগ গ্রাহকরা তাদের দ্বিতীয় সিম গুলিকে বন্ধ করে দিচ্ছে। বিশেষজ্ঞদের মতে যেভাবে রিচার্জের প্ল্যান গুলির দাম বাড়াচ্ছে বিভিন্ন কোম্পানিগুলো তাতেই গ্রাহকরা এ ধরনের সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হচ্ছে।