রামমন্দিরের শিলান্যাসের দিনে দেখে নিন বিশ্বের আরো 10 জাগ্রত হিন্দু মন্দিরের খুঁটিনাটি, একনজরে..

হিন্দু মন্দির ভারত ছাড়াও বিশ্বের অন্যান্য দেশে রয়েছে। প্রত্যেকটি মন্দিরের প্রাচীনত্ব এবং গঠনশৈলী মানুষের মনকে বিস্মিত করে দেয়। প্রত্যেকটি মন্দিরেই আঞ্চলিক এবং সাম্প্রদায়িক দিকথেকে গঠনগত দিক থেকে অন্য রকম। শুধু তাই নয় এই হিন্দু মন্দির গুলি বাস্তুশাস্ত্র মেনে তৈরি করা হয়েছে। আর আজকে আমরা নীচে মোট দশটি সুপ্রাচীন এবং বৃহৎ মন্দিরের নাম এবং কোথায় অবস্থিত সেই বিষয়ে বিস্তারিত ভাবে জানবো।

1. আন্নামালাইয়ার মন্দির : এটি তামিলনাড়ুতে অবস্থিত। এবং এটি শিবের মন্দির। আন্নামালাই পর্বতমালার ঠিক পাদদেশে অবস্থিত মন্দিরের চারপাশে চারটি টাওয়ার এবং চারটি পাথরের দেওয়াল রয়েছে। তাই এটি অনেকটা দুর্গের মতো দেখতে লাগে। বহু মানুষ এই মন্দির দর্শনের যান। এই মন্দিরটির ক্ষেত্রফল হল  101,171 বর্গমিটার।

2. বেলুড় মঠ :স্বামী বিবেকানন্দ এটি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন সর্বপ্রথম। আমরা সবাই জানি ঠাকুর রামকৃষ্ণ পরমহংস দেবের শিষ্য ছিলেন স্বামী বিবেকানন্দ। স্বামী বিবেকানন্দ তাঁর গুরু কে শ্রদ্ধা জানানোর জন্যই এই রামকৃষ্ণ মঠ প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। এটি পশ্চিমবঙ্গের হাওড়া জেলার হুগলি নদীর পশ্চিম পাড়ে অবস্থিত। কলকাতা সহ আরও বিভিন্ন জায়গা থেকে দর্শনার্থীরা আসেন এখানে। 40 একর জমির উপর অবস্থিত এই বেলুড় মঠ। এই মঠপ্রাঙ্গনে রামকৃষ্ণ পরমহংস, সারদা দেবী এবং স্বামী বিবেকানন্দের দেহাবশেষের উপর অবস্থিত এই মন্দির এবং এখানে রামকৃষ্ণ মিশনের সদর কার্যালয় অবস্থিত।

3. জম্বুকেশ্বর মন্দির : তামিলনাড়ুর ত্রিপুরাপল্লীতে এই মন্দির অবস্থিত। এটি প্রায় 1800 বছর আগে কোচেঙ্গা চোল এই শিব মন্দির টি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন।

4. নেল্লাইয়াপ্পার মন্দির :  এই মন্দিরটি তিরুনেলভেলিতে অবস্থিত। এই মন্দিরটি মোট 71 হাজার বর্গকিলোমিটার জুড়ে অবস্থিত। এই মন্দিরটি বিশেষ করে স্বামী নেল্লাইয়াপ্পার এবং শ্রী আরুন্থারুম কান্থিমাথি আম্বালকে উৎসর্গ করে বানানো হয়েছে।

 

5. শ্রী রঙ্গনাথস্বামী মন্দির :  এই মন্দিরটি তিরুবরঙ্গম বিষ্ণু কে উদ্দেশ্য করে বানানো হয়েছে। বহু পুরনো এই মন্দির। এই মন্দিরটি শ্রীরঙ্গম, তিরুচিরাপল্লী, তামিলনাড়ুতে অবস্থিত। এই মন্দিরটির উচ্চতা 237 ফুট।

6. অ্যাংকরভাট মন্দির : এটি সারা বিশ্বের সবথেকে সুন্দর হিন্দু মন্দির গুলোর মধ্যে অন্যতম। এটি কম্বোডিয়ায় অবস্থিত। 12 শতকে এই মন্দিরটি তৈরি হয়েছে। প্রধানত হিন্দু পুরাণের দেবতাদের মৃন্ময়কে প্রতিনিধিত্ব করার জন্যই এই মন্দিরের ডিজাইন করা হয়েছে। এই মন্দিরটির বাইরের দেওয়াল 2.2 মাইল দীর্ঘ।

7. অক্ষরধাম মন্দির : এটির দিল্লিতে যমুনা নদীর তীরে অবস্থিত। গিনেস বিশ্বরেকর্ড অনুসারে এটি বিশ্বের সবচেয়ে বড় সর্বাঙ্গীণ হিন্দু মন্দির। 100 একর জায়গা নিয়ে এই মন্দিরটি অবস্থিত।

8. বৃহদিশ্ববার মন্দির : এই মন্দিরটি তামিলনাড়ুর থাঞ্জাভুরে অবস্থিত। অনেকেই এই মন্দির থেকে রাজারাজেশ্বরা মন্দির বলেও জানেন। এই মন্দিরের ভিতরে একটি বৃহৎ শিবলিঙ্গ রয়েছে।

9. তিল্লাই নটরাজ মন্দির : এই মন্দিরটি চিদাম্বরম নটরাজ মন্দির নামে পরিচিত। শিবের নৃত্যরত নটেশরূপ নটরাজ কে উৎসর্গ করে এই মন্দির বানানো হয়েছে। এটি দক্ষিণ ভারতের সর্বাপেক্ষা প্রাচীন মন্দির। এই মন্দিরটি 1,06,000  বর্গমিটার জুড়ে অবস্থিত।

10. একম্বরেশ্বর মন্দির : কাঞ্চিপুরমে এই মন্দিরটি অবস্থিত । মহাদেব কে উৎসর্গ করে এই মন্দিরটি বানানো হয়েছে।