সহজেই পাওয়া যাবে তেল। বাজারে পেট্রোল-ডিজেল বিক্রিতে বড় সিদ্ধান্ত কেন্দ্র সরকারের…

কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে পেট্রোল-ডিজেলের বিক্রির ক্ষেত্রে দেশের নিয়ম ব্যবস্থাকে শিথিল করা হল। এখন থেকে যে কোন সংস্থার নিট সম্পদের মূল্য আড়াইশো কোটি টাকা হলে পেট্রোল পাম্পের জন্য ডিলারশিপ নিতে পারবেন। গত বুধবার দিন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভা এমনই এক সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে আর এর ফলে বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন আগামী দিনে সুপার মার্কেটে বিক্রি করা যেতে পারবে পেট্রোল ডিজেল।

তবে শুধু তাই নয় এর ফলে সাধারণ মানুষের জ্বালানি কেনাটা এতটাই সহজ হয়ে যাবে যে গ্রামগঞ্জেও পেট্রোল-ডিজেলের যোগানও বাড়বে। এতদিন পর্যন্ত কেন্দ্র সরকারের নিয়ম ছিল পেট্রোলিয়ামের ক্ষেত্রে কমপক্ষে দুই হাজার কোটি টাকার লগ্নি গারেন্টি থাকলেই তবে পেট্রোল পাম্প খোলার অনুমতি দেওয়া  হত। যার ফলে যেসব রাষ্ট্রতর অথবা বেসরকারি সংস্থার নিজস্ব তৈল শোধনাগার রয়েছে তারাই নামতে পারতো সেই ব্যবস্থায়।

তবে এবার সেই ব্যবস্থার দিকেই নজরদারি রেখেছে কেন্দ্র সরকার যার ফলেই তারা এবার সেই শর্তকে 2000 কোটি থেকে কমিয়ে 250 কোটির এর মধ্যে নিয়ে এসেছে। বৈঠক শেষ হওয়ার পরেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ বলেন নতুন করে যারা ডিলারশীপ পাবেন তাদের গ্রামীণ বা সরকারের ঘোষিত প্রত্যন্ত এলাকায় কম কমপক্ষে 5 শতকরা আউটলেট খুলতে হবে। তবে এক্ষেত্রে নতুন করে যাদের ডিলারশিপ দেওয়া হবে তাদের কিছু শর্ত মানতে হবে।যার মধ্যে অন্যতম হল পেট্রোল ডিজেল ছাড়া এই সংস্থাকে অন্তত একটি বিকল্প জ্বালানিও বিক্রি করতে হবে।

তা সে এলএনজি, সিএনজি, জৈব-রাসায়নিক, ব্যাটারিচালিত গাড়ি চার্জিং বন্দোবস্তই হোক না কেন।সবশেষে যদি এই হিসাব মিলিয়ে দেখা যায় তাহলে আপাতত দেশে সরকারি এবং বেসরকারি সংস্থা মিলিয়ে মোট 68 হাজার বেশি পেট্রোল পাম্প হয়েছে এবং দিন দিন যেভাবে জ্বালানির চাহিদা বেড়ে চলেছে সেদিকে তাকিয়েই এই নিয়মকে আরো শিথিল করল কেন্দ্র সরকার। আর একই সঙ্গে জ্বালানি ব্যবসাতেও আরো বেশি করে বেসরকারি সংস্থা অংশগ্রহণের ব্যবস্থা করা হল।