উৎসবের আনন্দ ভাগ করে নিতে শীতের রাতে শহরের রাস্তায় সান্তা হলেন নুসরত…

শুরু হয়ে গেছে শীতের মরসুম, শীতের আমেজ উপভোগ করার জন্য নানারকম প্লানে ব্যস্ত হয়ে উঠেছে সারা শহরবাসী। কারণ সামনেই রয়েছে বড়দিন, তবে এই শীতের মরসুম তাদের জন্য বেশী কষ্টকর হয়ে উঠে যাদের কাছে এই শীত থেকে উদ্ধার পাওয়ার জন্য সামান্যতম গরম জামাকাপড় থাকে না, তাই সেই সময় কালটা রীতিমতো কষ্টকর হয়ে ওঠে এইসব মানুষদের ক্ষেত্রে। তবে আবারো বর্তমান তৃণমূল সাংসদ তথা তারকা নুসরাত জাহান ও তার স্বামী নিখিল জৈন বড়দিন উপলক্ষে দুর্গতদের জন্য সান্তা সাজলেন।

এবার পথবাসী থেকে যৌনকর্মী সকলের হাতে কম্বল তুলে দিয়ে তাদের এই শীতের ঠান্ডার হাত থেকে রক্ষা করলেন বসিরহাটের বর্তমান সাংসদ তথা অভিনেত্রী নুসরাত জাহান। হাতে সময় রয়েছে মাত্র দুটো দিন তারপরে বড়দিন। আর উৎসব মানেই তো আপনজন খাওয়া-দাওয়া,আনন্দ, উপভোগ করা আর তারপর যদি সামনে এরকম এক বড় উৎসব বড়দিন থাকে তাহলে তো কোন কথাই হয় না। কারণ বড়দিন মানেই হলো চারিদিকে কেক- পেস্টি, দেদার পার্টি তার সাথে রয়েছে নতুন জামা- কাপড় কেনা।

তবে এই শীতের দিন সবচেয়ে বেশি কষ্টকর হয়ে ওঠে সেই পথবাসীদের জন্য যাদের পথের ধারে খোলা আকাশের নিচে দিন কাটে। সেই সব মানুষদের ক্রিসমাস পার্টি তো দূরের কথা এই শীতের হাত থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য গায়ে প্রয়োজনীয় পোশাক অব্দি নেই। তাদের সম্বল বলতে রয়েছে হাতে গোনা কয়েকটা কাপড়। সেই সব মানুষদের কথা কেউ ভাবেনা একবারও। তবে এবার সেই দিকে দেখতে পাওয়া গেল উদার মানসিকতার পরিচয় তৃণমূল সাংসদ নুসরাত জাহানের। এইসব মানুষদের উদ্দেশ্যে সিক্রেট সান্তা সেজে কম্বল বিলি করলেন তিনি ও তার স্বামী নিখিল জৈন।

তিনি যে শুধু এই দুর্গতদেরই কম্বল বিলি করলেন শুধু তাই নয়, তারই সাথে তিনি সমাজের বাঁকা চোখে দেখা যৌনকর্মীদের ও কম্বল দান করলেন। এই তৃণমূল সাংসদের বক্তব্য উৎসব মানে সকলের সাথে আনন্দ আর খুশি উপভোগ করাই তা দুর্গত এবং যৌনকর্মীরা হোক না কেন। সকলকেই এই উৎসবে মরসুমে উষ্ণতামাখা ভালোবাসার কাপড়ে মুড়ে দিলাম। উৎসবে আনন্দ ভাগ করে নিলাম সকলের সাথে। আর মানবিক হওয়ার জন্য তো কোন মূল্যের প্রয়োজন হয় না তাই একটু আনন্দ ছড়িয়ে দিলাম সকলের মধ্যেই। এদিন লক্ষ্য করা যায় নিজের হাতের বাচ্চাদের কম্বল দিয়ে মুড়ে ভালবাসার আদরের জড়িয়ে ধরলেন।

.

every festival calls for joy and smiles… cover all up with love and warmth.. from the underprivileged to the sex workers.. all deserve happiness…and kindness is free, so sprinkle it everywhere.. #sharejoyisdoublejoy #secretsanta #christmas for all #inclusiveIndia #secularBengal

Posted by Nusrat Jahan on Saturday, December 21, 2019

 

আর মুহূর্তের মধ্যে এই ফুটপাতবাসী দেওয়া সেই কম্বল বিতরণের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার হতে থাকে। যেখানে নুসরাত জাহান ও তার স্বামী নিখিল জৈন নিজের হাতে কম্বল তুলে দিচ্ছেন সকল পথ বাসীদের হাতে। শুধু এই প্রথম নয় এর আগেও দীপাবলির মরসুমে আনন্দ ভাগ করে নিয়েছিলেন পথশিশুদের সাথে, তারই সাথে দীপাবলীর উপলক্ষে দুর্গতদের বস্ত্র বিলি করেছিলেন । তখনো তিনি তাঁর ভক্তদের মন কেড়ে নিয়েছিলেন। আর যেমনটা আমরা জানি তিনি একজন মুসলিম ধর্মাম্বলী হয়েও বিয়ে করেছেন এক হিন্দুকে, তারই সাথে হিন্দু ধর্মের মান বজায় রাখতে পড়েছেন সিঁদুর, এমন কী লোকসভায় গিয়ে স্পিকারের পায়ে হাত দিয়ে প্রণাম করেছেন। এমনকি তিনি তার স্টারডমের বাইরে গিয়ে বসিরহাটের মানুষকে আপন করে নিয়েছেন মিশে গেছেন তাদের সাথে।