দীর্ঘ আলোচনা ও চর্চার পর অবশেষে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় পাস হয়ে গেল NPR, এতে আনুমানিক খরচ হবে 8500 কোটি টাকার..

ন্যাশনাল পপুলেশন রেজিস্ট্রার বা NPRএর আপডেট সিদ্ধান্ত নিলেও কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা। পশ্চিমবঙ্গ সহ একাধিক রাজ্যে বিরোধিতা থাকা শর্তেও NPR আপডেটের সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছে ইতিমধ্যে কেন্দ্র সরকার। আর এর জন্য আনুমানিক খরচা করা হবে 8,500 কোটি টাকার। আজ অনেক দীর্ঘ চর্চা ও আলোচনার পর কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় পাস হয়ে গেলো এই National Population Register বা NPR। আজ সকাল থেকে ক্যাবিনেট মিটিংয়ে অন্যান্য এজেন্ডা দের মধ্যে এই মামলার প্রস্তাব রাখা হয়েছিল।

তবে এটি নিয়ে সাধারণ মানুষকে ঘাবড়াবার কোন  কারণ নেই কারণ NPR শুধুমাত্র দেশের সামান্য নাগরিকদের গণনা করার প্রক্রিয়া। তবে এখন প্রশ্ন দেশের সামান্য নাগরিক কারা, দেশের সামান্য নাগরিক তারায় যারা কোন এলাকায় গত ছয় মাস অথবা তার অধিক সময় ধরে বসবাস করছেন অথবা আগামী ছয় মাস অথবা তার থেকে বেশি সময় ধরে ওই এলাকায় থাকার পরিকল্পনা আছে তাদে। এই বিষয়ে জনগণনা কমিশনের তরফ থেকে জানানো হয়েছে এই NPR এ নথিভূক্ত হবে এদেশের স্থায়ী বাসিন্দাদের যাবতীয় তথ্য।

এরই সাথে নথিভূক্ত করা হবে বায়োমেট্রিক তথ্য কেউ। কোনো জায়গায় অন্তত একটানা থাকলে নথিভুক্ত করা হবে তার নাম NPR এ,তারই সাথে কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে জানানো হয়েছে ভারতের সমস্ত স্থায়ী বাসিন্দাদের নাম নথিভুক্ত করা বাধ্যতামূলক রয়েছে এই NPR তে। এক অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে তথ্য অনুযায়ী জানতে পারা গেছে রাষ্ট্রীয় জনসংখ্যা রেজিস্টার এর জন্য 2010 এর শেষবার জনগণনা করা হয়েছিল আর এরপর 2011 সালে জনগণনা পরিসংখ্যান জারি করা হয়।আর এর জন্য দেশের প্রতিটি ঘরে গিয়ে সমীক্ষা করা হয়েছিল এই পরিসংখ্যান গুলোকে ডিজিটাল করার প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হয়েছে। আর এই পরিসংখ্যানকে আপডেট করা হয় 2015 সালে।এবারও কেন্দ্রীয় সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে 2021 এর জনগণনা সময় আবারো দেশের সমস্ত রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল গুলোতে পরিসংখ্যা কে আবারো আপডেট করা হবে। তারই সাথে কেন্দ্রের তরফ থেকে আরও জানানো হয়েছে যে আগামী বছর 2020 এর এপ্রিল থেকে সেপ্টেম্বরের মধ্যে চলবে এই এনআরপি তৈরির কাজ।

Related Articles

Close