এখন PPF এর মাধ্যমে টাকা জমিয়ে আপনিও হয়ে উঠতে পারবেন কোটিপতি, শুধু করতে হবে এটি…

কোটিপতি কে হতে চায় না তবে সঠিক পথে ঠিকভাবে রোজগার করে অনেকের দ্বারা এটা সম্ভব হয়ে উঠে না। তবে আজকে আমরা যে পদ্ধতি নিয়ে আলোচনা করতে চলেছি সেটির মাধ্যমে আপনি মান্থলি রোজগারের সাহায্যেই কোটিপতি হওয়ার স্বপ্ন পূরণ করতে পারেন আপনার জীবনের। শুধুমাত্র এক্ষেত্রে অবশ্য দীর্ঘ সময়ের জন্য ইনভেস্টমেন্ট করতে হবে।এখন আপনি পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ডের মাধ্যমে কোটিপতি হতে পারবেন কিন্তু এটা সম্পূর্ণভাবে নির্ভর করছে এক্ষেত্রে আপনি কতটাকা ইনভেস্টমেন্ট করছেন তার উপর।

আর তারই সাথে এক্ষেত্রে আপনি যত বেশি দিনের জন্য টাকা ইনভেসমেন্ট করতে পারবেন ততবেশি আপনি নিজের কোটিপতি হওয়া স্বপ্নের কাছে পৌছাতে পারবেন। PF এর মাধ্যমে আপনি অধিকতম 150000 টাকা ইনভেসমেন্ট করতে পারবেন আপনি।PF এ সেভিংস করার জন্য সাধারণ মানুষের কাছে অত্যন্ত জনপ্রিয়। শুধু তাই নয় এর পাশাপাশি ইনকাম ট্যাক্স 80C অনুযায়ী ট্যাক্স এর ক্ষেত্রেও ছাড় পাওয়া যায়।

এর মাধ্যমে আপনি পনেরো, কুড়ি, পঁচিশ, ত্রিশ বছরের জন্য ইনভেসমেন্ট করতে পারবেন তবে এক্ষেত্রে 15 বছরের লক ইন পিরিয়ড শেষ হওয়ার পর এটিকে আপনি 5 থেকে 5 বছরের জন্যেও বাড়াতে পারবেন। তবে এখন কীভাবে ইনভেসমেন্ট করলে আপনি হয়ে উঠবেন কোটিপতি সে বিষয়ে আলোচনা করা যাক, এক্ষেত্রে আপনি ক্যারিয়ার শুরুতে প্রত্যেক মাসে 4585 টাকা করে জমা করলে 35 বছরে হয়ে উঠবেন কোটিপতি। এক্ষেত্রে আপনি পাবেন 7.9 শতাংশ হারে সুদ। আর যদি এই একই পরিষেবা আপনি পেতে চান একটু কম সময়ের মধ্যে তাহলে এক্ষেত্রে 6,945 টাকা করে ইনভেসমেন্ট করে 30 বছরের হয়ে উঠতে পারেন কোটিপতি।

আর যদি 25 বছরের মধ্যে হতে চান কোটিপতি তাহলে সে ক্ষেত্রে আপনাকে ইনভেসমেন্ট করতে হবে 10720 টাকা করে। আর যদি 7.9 শতাংশ সুদের হিসাবে ধরা যায় তাহলে 23 বছরে কোটিপতি হয়ে যাবেন। আর এক্ষেত্রে যদি 15 বছর পর ইনভেসমেন্ট করা বন্ধ করে দেন তাহলে আপনি কোটিপতি হয়ে যাবেন। এইভাবে 35 বছরে কোটিপতি হতে চাইলে 15 বছরে প্রতি মাসে 6270 টাকা জমা করতে হবে। আর এইভাবে 15 বছরের হিসেব করলে দেখতে পাওয়া যাবে আপনার টাকা জমা পড়ার পরিমাণ হল 21.87 লক্ষ। আর এবার ইনভেসমেন্ট না করলেও আগামী 20 বছরের মধ্যে আপনি এক কোটি টাকার মালিক হয়ে যাবেন।