এবার স্যাটেলাইট চিত্রের মাধ্যমেই প্রমাণিত হবে 26 ফেব্রুয়ারি হওয়া বিমানহানায় মৃত্যু জঙ্গির পরিসংখ্যা।

গত 26 শে ফেব্রুয়ারি পাকিস্তানের বালাকোট ,খাইবার পাখতুনখোয়ার ভারতীয় বায়ুসেনার বিমান হামলার প্রমাণ মিলতে পারে স্যাটেলাইট চিত্রে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে এই স্যাটেলাইট চিত্র প্রকাশ করা হয়নি।প্রথমে প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী জানতে পারা যায় সাড়ে তিনশ উপরে জঙ্গির মৃত্যু হয়েছে তবে গতকাল রবিবার দিন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ একটি জনসভায় বলেছেন ভারতীয় বায়ুসেনা দ্বারা করা এই এয়ার স্ট্রাইক এর ফলে 250 জন জঙ্গির মৃত্যু ঘটেছে। তবে অন্যদিকে পশ্চিমবাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিমান হানার জন্য বায়ুসেনার পাইলট দের অভিনন্দন জানিয়েছেন তবে 26 শে ফেব্রুয়ারি ঠিক কী ঘটেছিল তার তথ্য প্রকাশ করতে বলেছেন।

 

ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় সরকারকে সাথে ভারতীয় বায়ুসেনা দ্বারা করা এয়ার স্ট্রাইকে কতজন জঙ্গির মৃত্যু ঘটেছে তাও জানাতে বলেছেন কেন্দ্রীয় সরকারকে। যেমন কি আপনারা সকলেই জানেন যে 26 শে ফেব্রুয়ারি নিয়ন্ত্রণ রেখা অতিক্রম করে পাকিস্তানের বালাকোটের ঢুকে ভারতীয় বায়ুসেনা বাহিনী 12 টি মিরাজ 2000 নিয়ে জঙ্গি ঘাঁটিগুলি গুঁড়িয়ে দিয়েছে।সেদিন ভোর সাড়ে তিনটে নাগাদ ঘটেছিল এই ঘটনা টানা 21 মিনিট ধরে চলেছিল বোমাবর্ষণ।এদিকে এখনো পর্যন্ত কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে বিমান হানা নিয়ে কোন প্রকার তথ্য প্রকাশিত হয়নি সম্পূর্ণভাবে। এমনকি প্রকাশ করা হয়নি কোন প্রকার ভিডিও বা উপগ্রহ চিত্র। এছাড়া নিকেশ হওয়া জঙ্গিদের সংখ্যা নিয়ে রয়েছে নানান মতোভেদ। যার ফলে ছড়াচ্ছে বিভ্রান্তি এবং যার পূর্ণ লাভ উঠাবার চেষ্টা করছে বিরোধীরা।

এই নিয়ে বিরোধীরা একের পর এক প্রশ্ন করতে শুরু করে দিয়েছে এই সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের নিয়ে।