লকডাউনে LIC এর বড় চমক এখন মাত্র 27 হাজার টাকা বিনিয়োগেই করে পেয়ে যাবেন 10 লক্ষ টাকা

একটানা বহুদিন ধরে লকডাউন চলতে থাকায় নাজেহাল দেশের সাধারণ মানুষ। কারণ অধিকাংশ মানুষের লকডাউন এর ফলে কাজ বন্ধ হয়ে ঘরে বসে আছেন। এই সময় প্রত্যেকটি বাড়িতেই দুবেলা- দুমুঠো খাবার জোগাড় করার চিন্তার বিষয় হয়ে উঠেছে। এই দুঃসময়ের মধ্যে কিছুটা হলেও খুশির খবর নিয়ে এল এলআইসি(LIC)। সাধারণ মানুষের কথা ভেবে সেভিংস এবং সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে নতুন স্কিম নিয়ে এলো এই জীবন বীমা কোম্পানি (Life insurance company)।

এই নতুন স্কিম এ সেভিংস এর পাশাপাশি সুরক্ষা দেওয়া হবে। ফলে এই স্কিমে সাধারণ মানুষরা যে লাভবান হবেন তা বলা যায়। দেশের সবচেয়ে ভরসা যোগ্য বিমা সংস্থা হল এলআইসি। মূল্যবৃদ্ধির এই বাজারে সকলেই আমরা চেষ্টা করে থাকি মাসের শেষে কিছু টাকা জমানোর। যাতে সেই জমানো টাকা পরবর্তী কালে কাজে আসে। কিন্তু কোথায় কত টাকা জমা রাখলে ভবিষ্যতে সুরক্ষা মিলবে এটা সবথেকে বড় বিষয় হয়ে উঠে। বহুদিন আগে থেকে দেশের সবথেকে বড় বীমা সংস্থা(LIC) এলআইসি গ্রাহকদের সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে একাধিক পলিসি নিয়ে এসেছে।

প্রত্যেকটি পলিসির এর মধ্যেই বহু মানুষ যুক্ত রয়েছেন। প্রত্যেক মানুষই তাদের নিজেদের প্রয়োজন মতো ভবিষ্যতে সুরক্ষার জন্য পলেসি করিয়ে নিয়েছেন। তবে যারা এখনো পর্যন্ত এলআইসি জীবন বীমা করাননি বা জীবন বীমা পলিসি কেনার কথা ভাবছেন তাদের জন্য সুখবর হতে পারে আজকের এই খবরটি। ইন্সুরেন্স সংস্থা LIC সাধারণ মানুষের জন্য দারুন সুবিধা নিয়ে এসেছে। এলআইসির এই নতুন পলিসিটির নাম দেওয়া হয়েছে ‘নিউ জীবন আনন্দ পলিসি’ । এই পলিসিতে আপনি মাত্র 27 হাজার টাকা বিনিয়োগ করে 10 লক্ষ টাকা পর্যন্ত পেয়ে যেতে পারেন।

প্রথমে এটি শুনলে অবাক হওয়ার মতোন কিন্তু এটাই সত্যি। কিন্তু কোথায়, কীভাবে সেই টাকা বিনিয়োগ করতে হবে সে সম্পর্কে বিস্তারিত নিচে আলোচনা করা হয়েছে – এই বিমার নূন্যতম বয়স রাখা হয়েছে – 18 থেকে 50 বছর। এই স্কিমের নিয়ম অনুযায়ী 1 লক্ষ টাকা রাখা জরুরি। তবে টাকা রাখার কোন সর্বোচ্চ সীমা নেই। এই পলিসির গ্রাহক হতে চাইলে আপনাকে প্রতিমাসে, তিন মাস অন্তর, ছয় মাস অন্তর আবার প্রতিবছরেও প্রিমিয়াম জমা দিতে হবে। পলেসি নেওয়ার তিন বছরের মধ্যেই আপনি লোনও নিতে পারবেন। এই ‘নিউ জীবন আনন্দ পলিসি’ টি 15-35 বছরের হয়।