দেশনতুন খবরবিশেষ

করোনা চিকিৎসায় ভারতের ওপর ভরসা বাড়ছে গোটা বিশ্বের, বিশ্বগুরু হিসাবে আত্মপ্রকাশ করছে ভারত..

আজ থেকে প্রায় 127 বছর আগে 1893 সালের 11ই সেপ্টেম্বর বিশ্বধর্ম মহাসভায় মহা মনীষী স্বামী বিবেকানন্দ যে বক্তৃতা রেখেছিলেন যেখানে তিনি ভারতকে আগামী দিনে বিশ্বের কাছে ধর্মে ও কর্মে মহান হবার আশঙ্কা প্রকাশ করে গিয়েছিলেন তা এখন সম্ভবত সত্যি হতে দেখা দিয়েছে। এখন ভারত সম্ভবত নিজেই বিশ্বগুরু রূপে নতুন যুগের সূচনা করতে আরম্ভ করে দিয়েছে, যেখানে এখন গোটা বিশ্বে করোনা মহামারীর প্রভাব জড়িয়ে ধরে ইউরোপ এশিয়া সব দেশে আতঙ্কের সৃষ্টি করেছে।

এমনকি করোনা ভাইরাসের টিকা বিক্রির জন্য চীন সহ বেশ কিছু দেশ টিকা আবিষ্কারে দাবিও জানাচ্ছে তবে এরকম এক কঠিন পরিস্থিতিতে বিশ্বের অন্যান্য দেশ গুলি ভারত ছাড়া অন্য কোন দেশের উপর বিশ্বাস করতে রাজি হচ্ছে না। অন্যদিকে আমেরিকার গবেষকদের দাবি হাইড্রক্সক্লোরোকুইন ওষুধটি এই করোনা ভাইরাস এর উপর খুব ভালো প্রভাব ফেলছে, আর সেই অনুযায়ী বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী দেশ সহ আরো 30 টি দেশ এই ওষুধের জন্য ভারতের কাছে অনুরোধ জানিয়েছে। পাশাপাশি ভারত ও এই অনুরোধে সাড়া দিয়ে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে বিশ্বের অন্যান্য দেশগুলির প্রতি।

তবে এই আতঙ্কের মধ্যে একটা ভালো খবর প্রকাশে আসছে যেটি সকল ভারতীয়দের কাছে গর্বের বিষয় হতে পারে। শোনা যাচ্ছে এই করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য ভারত থেকে 15 জন ডাক্তার ও বিশেষ স্বাস্থ্যসেবা বিশেষজ্ঞদের একটি টিম গতকাল কুয়েত পৌঁছেছে। এই যে বিশেষ টিমটি ভারতের তরফ থেকে কুয়েত পৌঁছেছে সেটি সেখানের করোনা মহামারী বিরুদ্ধে সাহায্য করার জন্যই পৌঁছেছে ওখানে।প্রসঙ্গত বলে রাখি কুয়েত সরকারের অনুরোধ করার পরেই কিন্তু ভারত সরকারের তরফ থেকে এই বিশেষজ্ঞদের টিম টিকে সাহায্যের জন্য পাঠানো হয়েছে কুয়েত।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সাথে কুয়েতের প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে এ বিষয়ে বার্তালাপ হয় এবং তারপরে ভারত সরকারের তরফ থেকে এক বিশেষজ্ঞদল সেখানে করোনা সংক্রমণ রুখতে দু- সপ্তাহ কুয়েত উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছে।এই বিষয় নিয়ে ভারতে বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর জানিয়েছেন করোনা মোকাবিলায় ভারত ও কুয়েত একে অপরের সাথে কাঁধ মিলিয়ে চলবে যার দরুন কুয়েতের তরফ থেকে সাহায্য চাওয়াই ভারতে তরফ থেকে 15 জন চিকিৎসক ও বেশকিছু বিশেষ স্বাস্থ্যসেবা কর্মীকে পাঠানো হয়েছে সেখানে।গত পয়লা এপ্রিল এই দুই দেশের নেতাদের মধ্যে একে অপরের সাথে তথ্য আদান- প্রদান ও সাহায্যের কথা বলা হয়েছিল।

তবে যেমনটা আমরা জানি ভারতের সম্পর্ক এখন শুধু কুয়েতের সাথেই নয় বিশ্বের অন্যান্য সভ্য দেশ গুলির সাথে ভালো রয়েছে। যার ফলে ভারতের ওপর এখন সম্পূর্ণভাবে নির্ভরশীল থাকা প্রতিবেশী দেশ এবং ইউরোপিয়ান দেশগুলির পাশে দাঁড়িয়েছে।

Related Articles

Back to top button