এবার গণেশ চতুর্থীতে আপনিও হতে পারেন সৌভাগ্যবান,সৌভাগ্যবতী ।জানুন..

আগামী 23 শে সেপ্টেম্বর 2018 আমাদের সবার প্রিয় ঠাকুর অর্থাৎ গণেশ ঠাকুরের চতুর্থী উৎসব। এখন থেকেই অনেকে উৎসবের জন্য তৈরি হতে শুরু করে দিয়েছেন। সাধারনত মহারাষ্ট্র এর মুম্বাই, গুজরাট সহ বিভিন্ন জায়গায় গণেশ চতুর্থী পালন করা হয়। হিন্দু মতে গণেশ হলেন বুদ্ধি এবং সমৃদ্ধির দেবতা। শাস্ত্র এবং জ্যোতিষী মতে এবারের গণেশ পুজো অন্য বারের থেকে আলাদা। বিগত কয়েক বছরে এরকম তিথি নক্ষত্র নাকি কোন পুজোতে দেখা যায়নি। জ্যোতিষীদের মতে কিছু নিয়ম পালনের মাধ্যমে আপনি এই গণেশ চতুর্থীতে সৌভাগ্যবান সৌভাগ্যবতী হতে পারে। এগুলি হলো এই রকম:-

১) চতুর্থীর আগের দিন গণেশ ঠাকুর কে দুধ দিয়ে ভালো করে স্নান করিয়ে নিতে হবে।

২) পুজোর কয়েকদিন গণেশ ঠাকুর কে অন্তত তিনবার জি জ্বালানি হিসেবে ব্যবহার করে আরতী করতে হবে, খেয়াল রাখবেন যেন গণেশ ঠাকুর এস আমি সবসময়ই কি প্রদীপ জ্বলতে থাকে।

৩) আরতির সময় গণেশ গণেশ ঠাকুরের কাছে এনার জনপ্রিয় যে গান “জয় গনেশ জয় গনেশ জয় গনেশ দেবা” সবাই মিলে করতে হবে।

৪) 3 থেকে 5 বার গণেশের সামনে এনার প্রিয় খাদ্য মতিচুরের লাড্ডু পেশ করে এবং তা নিজে এবং সকলে প্রসাদ হিসেবে গ্রহণ করুন।

৫) লালসালু এর ওপরে গণেশ কে স্থাপন করুন এবং সামনে কিছু হোক দান এবং সামান্য কিছু টাকা রেখে দিন।

৬) সর্বশেষে গণেশ ঠাকুরের ভালোবাসি নিজেদের মধ্যে থাকতে তাই আমার মানুষের মত যত্ন করুন।

আমরা সবাই ঠাকুরের সন্তান তাই এসব না করলে ঠাকুর আমাদের দেখবেন তবুও মনের শান্তি এবং ঠাকুরের শান্তির জন্য যেসব করা উচিত কিন্তু প্রয়োজন না। আগামী 23 সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার গণেশ চতুর্থীর জন্য সবাইকে শুভেচ্ছা আশা করছি গণেশ চতুর্থী সবার মঙ্গলময় হোক এবং আনন্দে কাটুক।