এখন আর চিন্তা নেই নতুন ২০০০ নোট ছিঁড়ে গেলে কোথায় নিয়ে যাবেন তা নিয়ে ভাবছেন।জেনে নিন তাহলে..

নোট বন্দির পর বাজারে সরকার তরফ থেকে নতুন নোটের চলন বেশ ভালই সফলতা পেয়েছে। আর বি আই স্বীকৃত এই নোটগুলি আকারে পুরনো নটা থেকে ছোট এবং বেশি টেকসই। বর্তমানে ২০০০,৫০০,১০০,৫০,১০ ইত্যাদি নতুন নোট বাজারে চলতি যাদের মধ্যে কিছু নোট ইতিমধ্যেই জীর্ণ হয়ে পড়েছে, এখন প্রশ্ন একটাই কি করা যায় এই জীর্ণ বাছারা নোট গুলির। নতুন নোট শুনতে শুধু নতুন রয়ে গেছে কিন্তু এখন এই নতুন ও পুরোনো হতে শুরু করেছে, এই বিষয়ে নতুন পদক্ষেপ আর বি আই এর, আর বি আই অনুমোদিত বা আর বি আই এর অধীনে থাকা যে কোন ব্যাংকে এই নতুন কিন্তু জীর্ণ বা ছেঁড়া নোট দেওয়ার পরিবর্তে নটীর অবস্থা দেখে এবং জীর্ণতা বিচার করে সেই নোটের মূল্যের সম্পূর্ণ বা অর্ধেক মূল্য গ্রাহককে ফিরে দেওয়া হবে।

দেশের অনেক মানুষেরই প্রশ্নের আর বি আই এর এই পদক্ষেপ উত্তর দিয়ে দিয়েছে। এখন আর চিন্তার বিষয় নেই জীর্ণ নোট বদল ইতিমধ্যে শুরু হয়ে গিয়েছে, তাই বাড়িতে পড়ে থাকা অকেজো নতুন নোট এখন সাধারণ মানুষ আর বি আই এর অধীনস্থ যে কোন ব্যাংকে গিয়ে তা প্রতিস্থাপন করতে সক্ষম হবে।।