NRC -এর দিকে আরও একধাপ এগিয়ে গেল সরকার, এবার জাতীয় পরিচয় পত্র আনতে চলেছে কেন্দ্র সরকার..

এবার কেন্দ্র সরকার আরো একধাপ এগালেন গোটা দেশজুড়ে জাতীয় নাগরিকপঞ্জি তথা এনআরসি চালু করার লক্ষ্যে। গত মঙ্গলবার দিন লোকসভায় নাগরিকত্ব সংশোধনী রুলস অর্থাৎ রেজিস্ট্রেশন অফ সিটিজেনস অ্যান্ড ইস্যু অফ ন্যাশনাল আইডেন্টিটি কার্ড 2019 পেশ করলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তবে এনআইসি অবশ্য নতুন কিছু বিষয় নয়, এটি 2003 সালের নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের 14এ ধারাতে জাতীয় পরিচয় পত্র অর্থাৎ ন্যাশনাল আইডেন্টিটি কার্ড এর কথা বলা হয়েছিল।

আর এই বিষয়ে প্রত্যেক নাগরিককে আবশ্যিকভাবে নথিভুক্ত করতে পারে তাদের জন্য এনআইসি জারি করতে পারে একথা উল্লেখ করা হয়েছিল। তাই এদিন সরকারের তরফ থেকে লোকসভায় পেশ করা হল এনআইসি তার দরুন এটা বলা যেতে পারে যে সরকার আরও একধাপ এগিয়ে গেল এনআরসির দিকে। কারণ এনআইসি ও এনআরসি ওতপ্রোতভাবে জড়িত একসাথে। তাই এখন বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন এবার যে পদক্ষেপ নিয়ে সরকার এগিয়ে গেল তা আরো একধাপ এগিয়ে যাওয়া এনআরসির দিকেই।

তবে একথা কারও জানতে বাকি নেই যে জাতীয় পরিচয় পত্র বিজেপি দীর্ঘদিনের দাবি। কারণ এর আগে দেশের প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপায়ীর নেতৃত্বধীনে এনআইসি তৈরির কথা বলা হয়েছিল। তাছাড়া যখন কারগিলের যুদ্ধ শেষ হয়েছিল তারপর 2001 সালে বাজপেয়ীর আমলে মন্ত্রিগোষ্ঠী দেশজুড়ে এনআরসি তৈরীর প্রস্তাব দিয়েছেন এবং তখন তাতে বলা হয়েছিল সমস্ত ভারতীয় নাগরিককে একটি বহুমুখী জাতীয় পরিচয় পত্র প্রদান করা উচিত। তারপর 2003 সালে তৎকালীন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী লালকৃষ্ণ আদবানি নাগরিকত্ব আইনে সংশোধন করেন।

এমনকি সেই সময়ে এমপিএনআইসি ও এনপিআর এর তথ্যকে যে এনআরসি কাজে ব্যবহার করা হবে তার ব্যবস্থাও করা হয়েছিল। দেশজুড়ে একদিকে যেমন সরকার এনআরসি লক্ষ্যে এক পা এক পা করে এগোচ্ছে। অন্যদিকে সরকার এনআরসি নিয়ে কিছু ভাবছে না বলে সরকারি ভাবে জানানো হচ্ছে।আর গত মঙ্গলবার দিন সংসদে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রী নিত্যানন্দ রায় এই এনআরসি সংক্রান্ত এক প্রশ্নের উত্তরে লিখিতভাবে জানিয়ে দেন এখনো পর্যন্ত সরকার জাতীয় স্তরে ন্যাশনাল রেজিস্টার অফ ইন্ডিয়ান সিটিজেন তৈরি করবে বলে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি।

তবে আপাতত দৃষ্টিতে যা মনে করা হচ্ছে যে সরকার চাপের ফলে হয়তো বাধ্য হয়ে পিছু হটছে দেশ জুড়ে এনআরসি করার থেকে। অন্যদিকে বিশেষজ্ঞমহলদের মত তেমন কোনো ভাবার অবকাশ নেই বলে। তারা জানিয়েছেন আপাতত এনআরসি নিয়ে কোনো সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়নি। তবে আগামী দিনে যে সরকার এনআরসি করবে না এমন কোনো কথা কোথাও বলা হয়নি।

Related Articles

Close