শুধু হাত ধুলেই আটকানো যাবে না সংক্রমণ, বাজার থেকে কেনা জিনিসেও থাকতে পারে ভাইরাস : তাই ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে…

মরন ভাইরাস করোনাকে ঠেকানোর জন্য ব্যস্ত সারা বিশ্ব। প্রতিদিন হু-হু করে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। এর পাশাপাশি মৃতের সংখ্যা বেড়ে চলেছে প্রতিদিন। এই করোনাকে ঠেকানোর জন্য সমস্ত রকম চেষ্টা করে যাচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার এবং সমস্ত রাজ্যের রাজ্য সরকার। তবুও যেন এই ভাইরাসকে আটকাতে পারা যাচ্ছে না। বিশেষজ্ঞরা বলছেন এই ভাইরাস আটকানোর একটাই রাস্তা সেটা হল নিজস্ব সচেতনতা। কারণ নিজেরা যত বেশি সচেতন হব তত এই ভাইরাসের সংক্রমণ আটকানো যাবে দেশে।

এই ভাইরাসের সংক্রমণ আটকানোর জন্য ইতিমধ্যে সারা দেশজুড়ে লকডাউন চলছে। এই অবস্থায় পুলিশ প্রশাসন থেকে শুরু করে চিকিৎসক মহলের সবাই সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য বলেছেন সাধারণ মানুষকে। লকডাউন চলার ফলে অনেক গরিব মানুষদের অসুবিধার মুখে পড়তে হয়েছে। কারণ তাদের সামর্থ্য নেই একবারে সমস্ত পণ্যদ্রব্য মজুদ করে বাড়িতে রাখা তাই তাদেরকে প্রতিনিয়ত একবার হলেও বাড়ির বাইরে যেতে হচ্ছে। তবুও আপনাকে খেয়াল রাখতে হবে যাতে সামাজিক দূরত্ব বজায় থাকে এক্ষেত্রে। কারণ এতে আপনার ও স্বাস্থ্যের পক্ষে ভালো আর পাশাপাশি মানুষজনের ও স্বাস্থ্যের পক্ষে ভালো। বাজার করার সময় আপনাকে কী কী বিষয়ে লক্ষ্য রাখতে হবে সেই সম্পর্কে কিছু টিপস্ দেওয়া হলো নীচে।

1. সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে বাজার করুন। আর বাজার করার সময় একথা সব সময় মাথায় রাখবেন আপনার এবং বিক্রেতার মধ্যে যেন মিনিমাম 2 মিটার দূরত্ব বজায় থাকে।

2. বাজার করে বাড়ি এসে একটি নির্দিষ্ট জায়গায় বাজারে থলিটি রাখুন। এরপর অন্তত কুড়ি সেকেন্ড হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে আপনার হাত ধুয়ে ফেলুন।

3. এরপর রান্নার আগে ও পরে ভালোভাবে হাত ধুয়ে নিন।

4. বাজারে সবজি অনেকেই ভালোভাবে হাত দিয়ে দেখে তারপর কেনেন। এতে কিছুটা হলেও সংক্রমণ ছড়ানোর আশঙ্কা থেকে যায়।  ফলে আপনি বাজার করে এসে ওই জিনিসপত্রগুলি ভালোভাবে নুন এবং গরম জলে ধুয়ে নিন।

5. আপনি যে ব্যাগটি নিয়ে প্রতিনিয়ত বাজার যান। বাজার করে আসার পর সেই ব্যাগটি ভালোভাবে ধুতে হবে।
6. বাড়ির নির্দিষ্ট কাউকে দিয়ে প্রতিনিয়ত বাজার করান এবং একটা কথা যেন মাথায় থাকে বাড়ির বয়স্ক সদস্যদের দিয়ে বাজার করা এড়িয়ে চলুন। কারণ বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে মানুষের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে আসে। তাই বয়স্কদের যতটা সম্ভব বাড়িতে রাখার চেষ্টা করুন।

7. বাইরে থেকে ঘরে আসার পর অবশ্যই ভালো করে স্নান করে ফেলুন। এছাড়া এখন কেনা এবং বেচার সময় কার্ডের পেমেন্টকে এড়িয়ে চলুন কার্ডেই সেই কাজ চালান।অবশ্যই এক্ষেত্রে টাকা-পয়সা লেনদেনের পর অ্যালকোহল যুক্ত কোনো ভালো জীবাণুনাশক দিয়ে হাত ধুয়ে ফেলবেন।সুতরাং এই সুস্থ থাকুন, ভালো থাকুন। আর পাশাপাশি মেনে চলুন সরকারি বিশেষ নিয়মাবলী গুলিকে।

Related Articles

Close