দাঁড়াতে হবে না আর RTO অফিসের লম্বা লাইনে! এবার অনলাইনেই রিনিউ করা যাবে ড্রাইভিং লাইসেন্স, পদ্ধতি জানতে

ড্রাইভিং লাইসেন্স রিনিউ করা আজকাল একটি অন্যতম ঝামেলার কাজ। ড্রাইভিং লাইসেন্স রিনিউ করার জন্য প্রত্যেকেই কম-বেশি দৌড়াদৌড়ি করতে হয়। তবে এবার থেকে এই রিনিউ পদ্ধতি খুব সহজে হতে চলেছে। রিনিউ করতে দৌড়াতে হবে না আর আরটিও অফিস। ভারত সরকার অনলাইন পোর্টালের মাধ্যমে এই সুযোগ করে দিচ্ছে। হলে অনলাইনে ঘরে বসেই করতে পারবেন এই পুরো প্রক্রিয়াটি।

অনলাইন ড্রাইভিং লাইসেন্স রিনিউ করার ক্ষেত্রে বেশ কয়েকটি পদ্ধতি চালু করেছে ভারত সরকার। নিম্নে পদ্ধতি গুলি ডিটেইলস দেওয়া হল:-

১. রিনিউ করার ক্ষেত্রে সর্বপ্রথমে পরিবহন বোর্ডের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে হবে। ওয়েবসাইটটি হল:-

https://parivahan.gov.in/parivan – এ যেতে হবে।

২. এবার মেনুর বামদিকে এপ্লাই অনলাইন সিলেক্ট করুন।

৩. তৃতীয় পর্যায়ে ” ড্রাইভিং লাইসেন্স রিলেটেড সার্ভিসেস “এই অপশনে ক্লিক করতে হবে।

৪. এবার আপনি কোন রাজ্য থেকে এই পরিষেবা নিতে চান তা সিলেক্ট করতে হবে।

৫. এই পর্যায়ে গেলে একটি নতুন পেজ খুলে যাবে।

৬. এরপর আ্যপ্লাই অনলাইন এ ক্লিক করে, “সার্ভিসেস অন্ড ড্রাইভিং লাইসেন্স” এ ক্লিক করতে হবে।

এই অপশনে কিভাবে আবেদনপত্র পূরণ করতে হবে সেই বিষয়ে পরামর্শ দেওয়া হবে।

৮. এই পর্যায়ে জন্মের তারিখ ,পিনকোড, ড্রাইভিং লাইসেন্স এর নাম্বার ইত্যাদির বিবরণ দিতে হবে।

৯. আপনার আগে যদি ড্রাইভিং লাইসেন্স থাকে সেক্ষেত্রে Required Services অপশন দেখাবে।

১০. এই পর্যায়ে আপনাকে নিজের গাড়ি এবং নিজের সম্পর্কে তথ্য ফর্মে জমা দিতে হবে।

১১. এরপর স্বক্ষরসহ ছবি জমা দিতে হবে । তবে এই নিয়ম সব রাজ্যের জন্য নেই।

১২. যদি কখনো মেডিকেল সার্টিফিকেট বদলাতে হয় সেক্ষেত্রে এখানে একটি স্লট বুক করে রাখতে হবে।

১৩. সম্পূর্ণ পূরণ করা হয়ে গেলে স্ক্রিনে একটি অ্যাপ্লিকেশন আইডি দেখাবে। রেজিস্টার মোবাইল নম্বরে অ্যাপ্লিকেশন এর ডিটেলস পাঠিয়ে দেওয়া হবে কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে । যার একটা প্রিন্ট আউট করিয়ে রাখতে হবে প্রত্যেককে।

১৪. শেষ পর্যায়ে একটি ২০০ টাকার রিনিউয়াল ফি জমা দিতে হবে। নেট ব্যাঙ্কিং, ডেবিট কার্ড ,ক্রেডিট কার্ড এসবের মাধ্যমে আপনি ফি দিতে পারেন।